কিংবদন্তি অভিনেত্রী নূতন সম্পর্কে ১০টি অজানা তথ্য

0

ওয়েব ডেস্ক: বলিউডের কিংবদন্তি অভিনেত্রী নূতন বেহেলর ( যাঁকে আমরা নূতন নামে চিনি) জন্মদিনে জেনে নিন তাঁর সম্পর্কে কিছু অজানা তথ্য:

1১৪ বছর বয়সে বড় পর্দায়

মাত্র ১৪ বছর বয়েসে বড় পর্দায় অভিনয় করেন নূতন। ছবির নাম ‘হমারী বেটী’ (১৯৫০)। ছবিটি পরিচালনা করেন তাঁর মা শোভনা সমর্থ।

2সিনেমা অনুরাগী পরিবার

নুতনের বাবাও একজন চলচ্চিত্র পরিচালক। বোন তনুজা একজন অভিনেত্রী।

3উল্লেখযোগ্য ছবি

তাঁর অভিনীত উল্লেখযোগ্য ছবিগুলির নাম সুজাতা, বন্দিনী, মিলন, ম্যায় তুলসি তেরে অঙ্গন কি, সোনে কি চিড়িয়া, সরস্বতীচন্দ্র ইত্যাদি।

4সেরা অভিনয়

বন্দিনীতে (১৯৬৩) তাঁর অভিনয়কে অভিনেত্রীর জীবনের সেরা অভিনয় বলে মনে করা হয়।

5ব্লকবাস্টার

১৯৬৮ সালে ব্লকবাস্টার ‘কর্মা’তে দিলীপকুমারের বিপরীতে অভিনয় করেন নূতন। তিনি জনপ্রিয় ছবি পেয়িং গেস্ট, বারিশ, মনজিল, তেরে ঘর কে সামনে ছবিতে  দেব আনন্দের বিপরীতে অভিনয় করেন।

6বিয়ে

তিনি ১৯৫৯ সালে নৌসেনা অফিসার রাজনীশ বেহেলকে বিয়ে করেন।

7শেষ ছবি

কানুন আপনা আপনা (১৯৮৯) তাঁর জীবনের শেষ ছবি।

8পুরস্কার

অভিনেত্রী নুতন একাধিক ফিল্ম ফেয়ার অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন। ভারতীয় সিনেমায় তাঁর অবদানের জন্য ১৯৭৪ সালে তাঁকে পদ্মশ্রী সম্মান দেওয়া হয়।

9মৃত্যুর পর মুক্তি পায় যে ছবিগুলি

নসীবওয়ালা (১৯৯২) এবং ইনসানিয়ত (১৯৯৪) ছবি দু’টি তাঁর মৃত্যুর পর মুক্তি পায়। উল্লেখযোগ্যভাবে ছবিটির শুটিং চলাকালীন মৃত্যু হয় ওই ছবির অভিনেতা বিনোদ মেহেরার।

10প্রয়াণ

১৯৯১ সালে  ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান নুতন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন