ওয়েবডেস্ক: এর আগে সাজিদ খানের চারিত্রিক বিকৃতির কিছু উদাহরণ সংবাদমাধ্যমে পেশ করেছিলেন তাঁর সহকারী সালোনি চোপড়া। জানিয়েছিলেন কী ভাবে তিনি মেয়েদের হস্তমৈথুনের কথা জানতে চান, কী ভাবে তাদের পোশাক তুলে এবং খুলে ব্যক্তিগত অঙ্গ নিয়ে কদর্য মন্তব্য করেন! তার পর থেকে একে একে অনেকেই মুখ খুলেছেন সাজিদের বিরুদ্ধে। সাজিদ-বিরোধী #MeToo বক্তব্যে এ বার যোগ দিলেন ‘লিপস্টিক আন্ডার মাই বুরখা’-র নায়িকা অহনা কুমরা।

আরও পড়ুন: সয়ে নাও, আমাদের সঙ্গেও হয়েছে, আমরা কী মুখ খুলেছি: #MeToo প্রেক্ষিতে বিস্ফোরক জুহি

“সাজিদের যে চারিত্রিক সমস্যা আছে, তা আমি জানতাম। জেনেও ঝুঁকি নিয়ে ওঁর সঙ্গে একটা কাজের ব্যাপারে কথা বলতে যাই, ওঁর বাড়িতেই। সাজিদ আমায় সরাসরি শোওয়ার ঘরে নিয়ে আসেন। আমি বলি, বাইরে বসলেই তো হয়! কিন্তু সাজিদের বক্তব্য ছিল, বাইরে ওঁর মা বসে আছেন এবং তাঁকে বিরক্ত করা উচিত হবে না! এর পর সাজিদ নানা অংসলগ্ন কথা বলতে শুরু করায় আমি জানিয়ে দিই- আমার মা পুলিশ অফিসার! ভেবেছিলাম, উনি তাতে নিবৃত্ত হবেন। কিন্তু উনি থামেননি, উল্টে জিজ্ঞেস করলেন- ১০০ কোটি টাকা দিলে কুকুরের সঙ্গে সেক্স করবে? এর পর আমায় আরও নানা কদর্য কথা বলে অপমান করেন এবং জানিয়ে দেন আমি স্পষ্ট কথা বলি বলে আমার বাণিজ্যিক ছবির নায়িকা হওয়ার যোগ্যতা নেই”, দাবি অহনার!

সাজিদের অবশ্য দাবি- এ সব কোনো কিছুই হয়নি! সবাই মিথ্যে বলে চলেছেন তাঁর নামে। একদিন সত্যিটা ঠিকই প্রকাশ্যে আসবে! আমরাও কি তাই চাই না?

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here