ওয়েবডেস্ক: তা হলে ব্যাপারটা কী দাঁড়াল? এই যে দফায় দফায় বলিউডের প্রথম সারির লোকজনদের সঙ্গে বৈঠকে বসছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, তা কীসের জন্য? ইন্ডাস্ট্রির উন্নয়ন? না কি পারস্পরিক স্বার্থ রক্ষার চুক্তি সম্পাদন?

আরও পড়ুন: মোদীর বলিউড মিট-এ খানেরা নেই কেন? জাতিগত বিদ্বেষ? প্রশ্ন আর তামাশায় অস্বস্তি ইন্ডাস্ট্রিতে!

মোদী যে মুহূর্ত থেকে বলিউডের ব্যক্তিত্বদের নির্বাচনী প্রচারে অংশ নেওয়ার অনুরোধ, প্রকারান্তরে আদেশ জানিয়ে টুইট করেছেন, সে মুহূর্ত থেকেই প্রশ্নটা উঠছে। কেন না, এর আগে তিনি কমিয়েছেন বিনোদন খাতে জিএসটি, এ বার বলিউডেরও পাল্টা কিছু দেওয়ার পালা। মানে, তাঁর হয়ে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের প্রচার করা!

আর এই পুরো ব্যাপারটাই, প্রধানমন্ত্রীর টুইট অনুযায়ী, গণতন্ত্রের স্বার্থ রক্ষা। তাঁর দাবি, বলিউডের ব্যক্তিত্বরা ভোটের প্রচারে ভাগ নিয়ে সবাইকে সচেতন করলে তবেই না কি সব ভোট ঠিকঠাক ভাবে পড়বে, অন্তত লোকে ভোট দিতে যাওয়ার কথা ভাববেন! তা, এই আজ্ঞা পেয়ে বলিউড কী ভাবল?

ভেবে যাই থাকুক না কেন, মুখে জো হুকুম বলা ছাড়া আর উপায়টাই বা কী! দেখুন না এক এক করে টুইটগুলো- করণ জোহর, অক্ষয় কুমার, এ আর রহমান সবাই কেমন তাল ঠুকছেন এক সার হয়ে!

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন