‘প্রিয়ঙ্কা যা বলেছেন, ঠিকই বলেছেন’, কলকাতায় এসে মন্তব্য জাভেদ আখতারের

0
javed akhtar
ছবি: টাইমস অব ইন্ডিয়া-র সৌজন্যে

ওয়েবডেস্ক: গত ২৬ ফেব্রুয়ারি বালাকোট এয়ার স্ট্রাইকের পর ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রশংসা করে বিতর্কে জড়াল হলি-বলি অভিনেত্রী প্রিয়ঙ্কা চোপড়া। তাঁর মন্তব্য ঘিরে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের পারমাণবিক যুদ্ধের উস্কানির অভিযোগ উঠছে বেশ কয়েক দিন ধরেই। সেই ইস্যুতেই কলকাতায় এসে প্রিয়ঙ্কার সমর্থনে মুখ খুললেন মুম্বই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির বর্ষীয়ান ব্যক্তিত্ব জাভেদ আখতার।

প্রিয়ঙ্কা ইউনিসেফের শুভেচ্ছা দূত। এই পদ থেকে প্রিয়াঙ্কার অপসারণের দাবি জানান পাকিস্তানের মানবাধিকার মন্ত্রী শিরিন মাজারি। ইউনিসেফকে চিঠি দিয়ে তিনি দাবি করেন, নরেন্দ্র মোদী নেতৃত্বাধীন সরকার কাশ্মীরে আন্তর্জাতিক কনভেনশনবিরোধী যে কাজ করেছে তাকে সমর্থন করার মধ্যে আন্তর্জাতিক সংস্থার বিশ্বাসযোগ্যতা নষ্ট করেছেন প্রিয়ঙ্কা।

কলকাতায় একটি সাহিত্য অনুষ্ঠানে এসে বুধবার জাভেদ আখতার বলেন, “প্রিয়ঙ্কার বক্তব্যে যদি পাকিস্তান আঘাত পায়, তা হলে তাদের যা ইচ্ছা তাই করতে পারে।” তিনি আরও বলেন, “আমি প্রিয়াঙ্কাকে ব্যক্তিগত ভাবে চিনি। উনি একজন শিক্ষিত, মার্জিত মানুষ। সবথেকে বড় কথা উনি একজন ভারতীয়।”

একই সঙ্গে তিনি বলেন, “যদি একজন ভারতীয় নাগরিক (প্রিয়ঙ্কা চোপড়া) ও পাক নাগরিকের মধ্যে কোনও বিতর্কের শুরু হয়, তা হলে প্রিয়াঙ্কা অবশ্যই একজন ভারতীয় হিসাবেই তাঁর মত প্রকাশ করবেন।”

এর আগে বিউটিকন লস অ্যাঞ্জেলসের অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন হলি-বলি অভিনেত্রী প্রিয়ঙ্কা চোপড়া জোনাস।  অনুষ্ঠানেও তাঁর বিরুদ্ধে পাকিস্তানে পারমাণবিক যুদ্ধের মদত দেওয়ার অভিযোগে আক্রমণ শানান এক পাকিস্তানি মহিলা

ওই মহিলা বলেন, “আপনি শান্তির জন্য জাতিসংঘের শুভেচ্ছাদূত মনোনীত হয়েছেন। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে আপনি পাকিস্তানে পারমাণবিক যুদ্ধকে উৎসাহিত করছেন। এতে আপনার থাকার কোনো পথ নেই… একজন পাকিস্তানি হিসাবে, আমার মতো কয়েক লক্ষ মানুষ আপনাকে আপনার ব্যবসায় সাফল্যের জন্য সমর্থন করেছে”।

প্রসঙ্গত, বালাকোট এয়ার স্ট্রাইকের পর প্রিয়ঙ্কা সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্টে লিখেছিলেন, “জয়হিন্দ, (ভারত দীর্ঘজীবী হোক), #ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনী”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here