নিজের ভুয়ো ছবি ও মিথ্যা ভিডিও ভাইরাল করার অভিযোগ নিয়ে লালবাজারের গোয়ন্দাপ্রধানের শরণাপন্ন হলেন ছোটো পর্দার ধারাবাহিকের জনপ্রিয় চরিত্র ‘পাখি’ অর্থাৎ মধুমিতা ও তাঁর স্বামী সৌরভ চক্রবর্তী।  তাঁদের অভিযোগ প্রায় ১০০টি ছবিকে পরিকল্পনা করে পরিবর্তন করা হয়েছে। পাশাপাশি একটি মিথ্যা ঘটনার সঙ্গে অভিনেত্রীকে জড়িয়ে তা সাইবার দুনিয়ায় ভাইরাল করে দেওয়া হয়েছে। সেখানে অভিনেত্রী আগে দেহব্যবসা করতেন এবং এখন সেই অভিযোগে ধরা পড়েছেন বলে মিথ্যা খবর রটানো হয়েছে। শুক্রবার এই বিষয়ে অভিযোগ জানাতে তাঁরা লালবাজারের গোয়েন্দা বিভাগে যান।

গত কয়েক দিন ধরেই রুপোলি পর্দার এই অভিনেত্রীর বিভিন্ন ছবি সুপার ইম্পোজ করে সেগুলি বাংলাদেশের কয়েকটি ওয়েব পোর্টালে দেখানো হচ্ছিল। সেই সময় বিষয়টি নিয়ে তাঁরা মাথা ঘামাননি। কিন্তু মঙ্গলবার থেকে একটি ভিডিওতেও অভিনেত্রীর মুখ ব্যবহার করা হয়েছে। তিনি দেহ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত বলেও রটানো হয় ও বিভিন্ন কুমন্তব্যও করা হয়। এর পর তা ভাইরাল হয়ে যেতেই তাঁরা এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে লালবাজারের  সাইবার অপরাধ বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করেন।

তাঁরা জানাচ্ছেন, যে সব জায়গায় তাঁরা কোনও দিনও যাননি, অভিনেত্রীর ছবিতে সেই সব জায়গা দেখা গেছে। এমনকি গোয়াতে কিছু দিন আগে এক জন তরুণী আপত্তিকর অবস্থায় গ্রেফতার হন। সেই তরুণীর মুখের জায়গায় মধুমিতার মুখ বসিয়ে তা ওয়েব পোর্টালটি প্রচার করছে বলে জানান তাঁরা। এমনকি ফেক আইডি থেকে নানা বিকৃত তথ্য ও মন্তব্য প্রচার করছে বলে তাঁরা দাবি করেন। এর পেছনে বাংলাদেশের একাধিক ওয়েব পোর্টাল জড়িত রয়েছে বলে দাবি করেন তাঁরা।

শুক্রবার সকাল সাড়ে দশটায় মধুমিতা ও সৌরভ লালবাজারে জয়েন্ট সিপির সঙ্গে দেখা করেন। তাঁরা গোটা ব্যাপারটি জানিয়ে অভিযোগ করেন  ও তাঁর বিকৃত হওয়া সব ক’টি ছবিই পুলিশের হাতে তুলে দেন। তথ্যপ্রযুক্তি ধারায় অভিযোগ দায়ের করেন।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই পোর্টালগুলি কোন আইপি অ্যাড্রেস থেকে নিয়ন্ত্রণ করা হত তা অনুসন্ধান করে দেখা হচ্ছে।  অভিযোগ প্রমাণিত হলে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হবে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here