ওয়েবডেস্ক: ছবি যেরকমই হোক না কেন, তাঁর অভিনয় প্রশংসা পাবেই। তা সে দর্শকদের কাছ থেকেই হোক, বা সমালোচকদেরই হোক। এমনটাই হয়ে আসছে শেষ বেশ কয়েকটা বছর। কঙ্গনার সাম্প্রতিক ছবি ‘সিমরান’-এর ক্ষেত্রেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। জীবনের সেরা অভিনয়, এমন প্রশংসাও পেলেন বলিউডের ‘কুইন’। কিন্তু তার চেয়েও বড়ো খবর, এমন প্রতিক্রিয়া দিলেন কারা? স্বয়ং আদিত্য পাঞ্চোলি এবং তাঁর স্ত্রী জারিনা ওয়াহাব।

আরও পড়ুন; নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে কঙ্গনাকে নইলে জেলে যেতে হবে: আদিত্য পাঞ্চোলি

এ মাসের শুরুতে রজত শর্মার টিভি শো ‘আপ কি আদালত’-এ নিজের নাবালক বয়সের সম্পর্ক নিয়ে প্রথমবারের জন্য মুখ খোলেন কঙ্গনা। জানান, ১৭ বছর বয়সে বলিউডে পা রাখার শুরুর দিনগুলোতে দীর্ঘ দিন ধরে তাকে ধর্ষণ করেছিলেন আদিত্য পাঞ্চোলি। আদিত্যর স্ত্রী জারিনাকে সেসব কথা জানিয়েও কোনো লাভ হয়নি বলেও জানিয়েছেন ‘সিমরান’। কঙ্গনার বিরুদ্ধে আইনি মামলা করার কথা জানিয়েছেন আদিত্য। বলেছেন, যে সব মঞ্চে তাঁর বিরুদ্ধে মন্তব্য করেছেন কঙ্গনা, সে সব মঞ্চ থেকেই নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে তাঁকে। দু’পক্ষের তিক্ততা যখন এরকম জায়গায়, তখন হঠাৎ কঙ্গনার অভিনয়ের প্রশংসা কি অন্য কোনো ইঙ্গিত দেয় না?

আরও পড়ুন: সিমরানের মায়া কাটিয়ে কঙ্গনা-স্পর্শে নতুন আলোর খোঁজ বলিউডের

সম্প্রতি অন্য এক সাক্ষাৎকারে কঙ্গনা বলেন, আদিত্যর বিরুদ্ধে মুখ খোলার জন্য স্বয়ং প্রযোজক তাঁকে ভরসা দিয়েছিলেন।  সরাসরি না বললেও কঙ্গনা কি তাহলে স্বীকার করে নিলেন, ‘১৪-১৫বছর আগের’ ঘটনা নিয়ে নতুন করে যে এত হই চই, আলোচনা এসব নিছক-ই ‘সিমরান’-এর প্রোমোশন!

মঙ্গলবার ‘সিমরান’-এর স্ক্রিনিং শেষে সংবাদ মাধ্যম ছুটেছিল আদিত্য-জারিনের প্রতিক্রিয়া জানতে। জারিনা বলেন, “অভিনেতা কঙ্গনাকে নিয়ে আমাদের কোনোদিন কোনো সমস্যা ছিল না। কিন্তু মানুষ হিসেবে ও ভালো নয়”। আদিত্য বললেন, ভালো মানুষ হলে তবেই একজন ভালো অভিনেতা হওয়া যায়।

‘সিমরান’-এর প্রোমোশন কি তবে এখনও চলছে?

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন