alia bhatt

ওয়েবডেস্ক: কী আর বলবেন তিনি! যমজ পেয়ে মেয়ে তো নিজেই খুশিতে ডগোমগো!

ব্যাপারটা কী? এত দিন এই মেয়েকে লুকিয়ে রেখেছিলেন মহেশ ভাট?

মহেশ ভাটের ব্যক্তিগত জীবন অনেকের মুখরোচক আলোচনায় পরিণত হলেও মেয়ে তাঁর দু’টি বই নেই। আলিয়ার এই যমজকে প্রচারের আলোয় নিয়ে আসার পিছনে যা কিছু অবদান, তা পরিচালক ডেভিড ধাওয়ানের।

হয়েছে কী, ডেভিড ধাওয়ানের মাথায় এখন ভূত চেপেছে রিমেকের। তাও আবার যে-সে ছবির রিমেক নয়, যমজ চরিত্র আছে এমন ছবির রিমেকই তাঁর মনপসন্দ। ফলে ‘জুড়ওয়া ২’-এর কাজ শেষ করে ‘জুড়ওয়া ৩’-এর দিকে এগোচ্ছেন তিনি, এমনটাই খবর।

আর সেই খবর পেয়েই পুরনো বন্ধু বরুণ ধাওয়ানের বাবার কাছে দরবার করতে গিয়েছিলেন নায়িকা। দাবি জানিয়েছিলেন- ‘জুড়ওয়া ৩’ ছবিতে তাঁকে নিতেই হবে!

তার পর? বাকিটা বরং জানা যাক আলিয়ার জবানবন্দিতে।

“আমার কথা শেষ হওয়ার আগেই মাথা নেড়ে না বলে দেন ডেভিড আঙ্কল! আবার আমি আবদার করি! তখন মুচকি মুচকি হেসে তিনি জানান, তুমি আমার ছবিতে যমজ চরিত্রে অভিনয় করবে নিশ্চয়ই। তবে সেটা ‘জুড়ওয়া ৩’ নয়। তোমার জন্য আমার কাছে এর চেয়েও ভালো প্রস্তাব আছে । আমি ‘চালবাজ’-এর রিমেক করছি। সেখানে এবার তোমায় অভিনয় করতে হবে”, এক গাল হেসে জানিয়েছেন নায়িকা।

মানে আলিয়া এবার পা দিতে চলেছেন শ্রীদেবীর জুতোয়?

একদমই তাই! সেই ১৯৮৯-এ বক্স অফিসে ঝড় তোলা রজনীকান্ত-শ্রীদেবী-সানি দেওলের ‘চালবাজ’ এবার নতুন করে তৈরি হচ্ছে আলিয়াকে নিয়ে। সম্ভাবনা আছে, এই ছবিতেও ছেলে বরুণের জন্য একটা চরিত্র বরাদ্দ করবেন ডেভিড। সম্ভবত সানি দেওলের চরিত্রটাই দেওয়া হবে বরুণকে। তবে রজনীকান্তের চরিত্রে কে অভিনয় করবেন, তা এখনও ঠিক হয়নি।

আর শ্রীদেবী? তাঁর কি বক্তব্য এই রিমেক নিয়ে?

“বরাবর বলে এসেছি, আমার কোনো ছবি যদি নতুন করে বানাতে হয়, তবে সেটা একমাত্র ‘চালবাজ’! আর ওই ছবিতে আমার জায়গা কেবল আলিয়াই নিতে পারে”, সহাস্যে জানিয়েছেন নায়িকা।