বর্তমানে বলিউড সিনেমায় আকছার দেখা যায় কিসিং সিন। বিভিন্ন সিনেমায় নায়ক-নায়িকাকে আলিঙ্গন করে চুমু খেতে দেখা যায়। বলিউডের সিনেমায় জল ভাতের মত কাজ করে চুমু। তবে শুরুটা কিন্তু আজ থেকে হয়নি। সেই আশির দশকের গোড়ায় বোল্ড সিনের পরিচয় ঘটিয়েছিলেন রাজ কাপুর।

প্রায় ৯০ বছর আগের একটি চুমুর দৃশ্য এখনো সবাইকে টক্কর দিচ্ছে। বলা হয়, এটিই বলিউড সিনেমায় প্রথম ও সবচেয়ে লম্বা সময়ের চুম্বনের দৃশ্য। ১৯৩৩ সালে মুক্তি পাওয়া এই সিনেমার নাম নাম ‘কর্মা’

ববি
‘ববি’ সিনেমাটি, যেখানে প্রথমবারের মত ক্যারিয়ারে নায়কের ভূমিকায় অভিনয় করলেন ঋষি। আর তার বিপরীতে অভিষেক হলো মাত্র ১৬ বছর বয়সী ডিম্পলের। প্রথমবারের মত বলিউডি দর্শকদের মনে কেটে গেল দাগ, বিশেষ করে ঋষি-ডিম্পলের চমক লাগানো এক চুম্বন দৃশ্য ঝড় তুললো বলিউড পাড়ায়।

সাত্যম শিভম সুন্দরাম
শশী কাপুর এবং জিনাত আমানকে নিয়ে রাজ কাপুর নির্মাণ করেন এমনই গল্পের অনবদ্য সিনেমা ‘সাত্যম শিভম সুন্দরাম’। বলিউডি সিনেমার স্বর্ণযুগের দৃষ্টান্ত বয়ে বেড়ায় সিনেমাটিতে শশী-জিনাতের প্রেমভরা চুম্বন দৃশ্য। বলিউড সিনেমা ইতিহাসে এই জুটি চিরসবুজ হয়ে আছে বিশেষ এই চুম্বন দৃশ্যটির জন্যই।

রাজা হিন্দুস্থানী
রাজা হিন্দুস্থানী কারিশমা কাপুর আর আমির খানের ক্যারিয়ারে শক্ত এক ভিত গড়ে দিয়েছিলো তা বলার আর অপেক্ষা রাখেনা।দীর্ঘদিন এই চুম্বন দৃশ্যটিই ছিল যেকোন বলিউডি সিনেমার দীর্ঘতম চুম্বন দৃশ্য।

সরফারোশ
‘সরফারোশ’ ছবিতে সোনালি বেন্দ্রের সঙ্গ ঘনিষ্ঠ লিপলক করেছিলেন আমির খান। ছবিটি ব্লকবাস্টারের তকমাও পেয়েছিল। অন্তরঙ্গ ঘনিষ্ঠ চুম্বনের দৃশ্য নিয়ে আজও চর্চা নেটদুনিয়ায়।

জিসম
একসময়ের হার্টথ্রব জুটি বিপাশা বসু এবং জন আব্রাহাম ছিলেন বলিউডের সকল আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু। জন-বিপাশা, আর তারই প্রতিরূপ ছিলো গভীর এক চুম্বন দৃশ্য।

ব্ল্যাক
আমিতাভ বাচ্চানের সঙ্গে নারী ছোট, কিন্তু অর্থবহ এক চুম্বন দৃশ্য সাড়া ফেলে দেয় সবখানে। এমনকি খোদ আমিতাভ বাচ্চানের জন্যও দৃশ্যটি ছিল বেশ সাহসী।

আশিক বানায়া আপনে
বলিউডের সেরা চুম্বন দৃশ্যের তালিকায় ‘সিরিয়াস কিসার’ ইমরান হাশমি। এই অভিনেতার সবচেয়ে স্মরণীয় এবং একই সঙ্গে ‘বিতর্কিত’ চুম্বন দৃশ্যাবলী ছিল অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্তের সঙ্গে।

‘আশিক বানায়া আপনে’ সিনেমায় হিমেশ রেশামিয়ার গানের তালে তাদের দীর্ঘ যৌন উদ্দীপক দৃশ্য এবং চুম্বন ঝড় তুলেছিল। এমনকি বলিউডি সিনেমায় চুম্বনের দৃশ্যায়ন নিয়ে তুমুল বিতর্ক শুরু হয়ে পড়ে ইমরান-তনুশ্রীর গভীর চুম্বন দৃশ্যের ঘটনায়।

পরিণীতা
শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় কাহিনী অবলম্বনে বলিউডে তৈরি হয়েছে দেবদাস, পরিনিতার মত ছবি। বিদ্যা বালান ছবিতে একটি চুম্বন দৃশ্য। সেটিকে অভিনয়ের মাধ্যমে নিখুঁতভাবে ফুটিয়ে তুলেছিলেন। সেই চুমুতে ছিল না কোনো অশ্লীলতা,বরং স্নেহের পরশ।

জব উই মেট
প্রেম কাহিনী’তে এক গভীর প্রভাব ফেলেছিল এই ছবিটি। ছবিতে করিনা এবং শাহিদ ঘনিষ্ঠতার একটা ছাপ পড়ে ছিল একে অপরকে চুম্বন করার সময়।
জিন্দেগি না মিলে দোবারা অন্তরঙ্গ দৃশ্য তাকে দেখা যায় না। তবে এই ছবিতে ক্যাট সুন্দরীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হয়েছিলেন তিনি। সমুদ্রের পারে একে অপরকে জড়িয়ে ধরে আদর করে চুমু খেয়েছেন।

থ্রি-ইডিয়ট
বলিউডের ‘থ্রি-ইডিয়ট’ ছবিতে আমির খানের সঙ্গে করিনা কাপুরের চুম্বন দৃশ্য আজও পেজ থ্রি-র শিরোনামে।

আরও পড়তে পারেন :

প্রতারণার মামলা দায়ের করণভীরের বিরুদ্ধে

সাদা বিছানা পরনে নীল পাঞ্জাবী, নেই পাজামা.. ঘরের মধ্যে উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন মীর

অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে দীপিকা পাড়ুকোন

‘তোমাকে প্রতিদিন মিস করি’, সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেগঘন পোস্ট অভিনেত্রী রিয়ার

প্রয়াত অভিনেতা শুভময় চট্টোপাধ্যায়

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন