বাবা-ভাইদের নাম তুলে সোনাক্ষী সিনহাকে ট্রোল করলেন অমিতাভ বচ্চন

0

ওয়েবডেস্ক: ভারতীয় টেলিভিশনে সেরা কুইজ শো-গুলির মধ্যে অন্যতম ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’। অনুষ্ঠানটি বিগত ১০ বছর ধরে পরিচালনা করে আসছেন অমিতাভ বচ্চন। ওই শোয়ের একটি পর্বে অংশ নেন সোনাক্ষী সিনহা। তিনি প্রতিযোগীদের সাহায্য করতেই অংশ নিয়েছিলেন। কিন্তু ‘রামায়ণ’ থেকে একটি সহজ প্রশ্নের উত্তর দিতে না পারায় তাঁকে ট্রোল হতে হল সঞ্চালক অমিতাভের কাছে।

গত শুক্রবারের এপিসোডে অংশ প্রতিযোগী হিসাবে অংশ নেন রুমা দেবী। যিনি গ্রামীণ বিকাশ এবং চেতনা সংস্থান নামে একটি সংগঠনের সভানেত্রী। ওই সংগঠন বারমেঢ়ের ৭৫টি গ্রামের ২২ হাজার মহিলার কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দিয়েছে। রুমাকে প্রশ্নের উত্তর দিতে সহযোগিতা করতেই সে দিনের এপিসোডে হাজির হন সোনাক্ষী।

নির্দিষ্ট প্রশ্নের উত্তর দিয়ে রুমা-সোনাক্ষী জুটি ১২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা জিতে নেন। এর পরের প্রশ্ন হিসাবে অমিতাভ তাঁদের জিজ্ঞাসা করেন, রামায়ণের তথ্য মতে হনুমান সঞ্জীবনী নিয়ে এসেছিলেন কার জন্য?

বিপাকে পড়ে যান রুমা। তিনি ওই প্রশ্নের উত্তর জানতেন না। অন্য দিকে সোনাক্ষীও ধন্ধে পড়েন। তাঁর মনে হয়, সঠিক উত্তর হতে পারে সীতা। শেষমেশ তাঁরা ‘লাইফ লাইন’ অপশনের ব্যবহার করেন। সেখানে এক বিশেষজ্ঞ উত্তর দেন, লক্ষ্মণের জন্য সঞ্জীবনী নিয়ে এসেছিলেন হনুমান।

এর পরই ‘দাবাং’ নায়িকা সোনাক্ষীকে ট্রোল করেন অমিতাভ। তিনি বলেন, সোনাক্ষীর পরিবারের বেশির ভাগ সদস্যের নামই রামায়ণের সঙ্গে সম্পর্কিত। অথচ তিনিই এই উত্তরটা দিতে পারলেন না!

সোনাক্ষীর বাবার নাম বহুপরিচিত। শুধু তাই নয়, শত্রুঘ্ন সিনহার তিন দাদার নাম যথাক্রমে রাম, লক্ষ্মণ এবং ভরত। এমনকী সোনাক্ষির দুই ভাইয়ের নামও লব এবং কুশ!

সোনাক্ষীও থেমে থাকেননি। তিনি বলেন, এই এপিসোডের পর তাঁদের ‘রামায়ণ’ নামের বাড়িটার দরজা তাঁর জন্য এ বার বন্ধ হয়ে যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.