এক সময়ে বলিউডের ‘ত্রাস’ ৯ ভিলেনের মেয়েরা এখন কী করছেন?

0
villen

ওয়েবডেস্ক: বলিউডে এমন অনেক অভিনেতাই আছেন যাঁরা হয় কোনো না কোনো তারকার ছেলে বা মেয়ে অথবা কোনো তারকার বাবা-মা। এমনই এক ঝাঁক তারকা আছেন যাঁরা ভিলেন বা কমিডিয়ান চরিত্রে অভিনয় করতেন। দারুণ খ্যাতিও অর্জন করেছেন তাঁদের সময়। এখন তাঁদের মধ্যে অনেকের মেয়েই পর্দা কাঁপাচ্ছেন অথবা নিজের নিজের কর্মজগতে খ্যাতি লাভ করেছেন। তেমনই কয়েকজন বাবা-মেয়ের সম্বন্ধে জানব। জানব কার মেয়ে এথন কী করছেন।

শক্তি কাপুর ও শ্রদ্ধা কাপুর –

খ্যাত নামা শিল্পী শক্তি কাপুর। তিনি প্রায় ৭০০টি ছবিতে অভিনয় করেছেন। তার বেশির ভাগেই তিনি কৌতুক চরিত্র বা খল চরিত্রে অভিনয় করেছেন। তাঁর মেয়েই হলেন শ্রদ্ধা কাপুর। শ্রদ্ধা একাধারে অভিনেতা ও গায়ক। ২০১০ সালে শ্রদ্ধা অভিনয়ে আসেন। ২০১৩ সালের ‘আশিকি ২’ ছবির একটি গান তাঁকে গানের জগতেও খ্যাতি এনে দিয়েছে।

নাসির উদ্দিন শাহ ও হিবা শাহ –

চলচ্চিত্র ও মঞ্চ অভিনেতা এবং পরিচালক নাসির উদ্দিন শাহ। অভিনয়ের জন্য অনেক পুরস্কারও পেয়েছেন তিনি, তার মধ্যে রয়েছে তিনটি জাতীয় পুরস্কার, তিনটি ফিল্ম ফেয়ার অ্যাওয়ার্ড আর একটি ভেনিস ফিল্ম ফেসটিভ্যালের অ্যাওয়ার্ডও। একাধিক ছবিতে খল চরিত্রে অভিনয় করে হাড় হিম করে দিয়েছিলেন নাসির। তাঁর প্রথম পক্ষের মেয়ের নাম হিবা শাহ। তিনি একজন মঞ্চ অভিনেতা।

ড্যানি ডেনজংপা ও পেমা ডেনজংপা –

ড্যানি হলেন একজন বিখ্যাত অভিনেতা, গায়ক ও পরিচালক। তিনি সিকিমের ভূটানি বংশোদ্ভূত। ১৯৭১ সাল থেকে তিনি অভিনয় করছেন। সব মিলিয়ে প্রায় ১৯০টি হিন্দি ছবিতে অভিনয় করেছেন। তাঁর অভিনীত বিখ্যাত ছবির মধ্যে রয়েছে ‘ধুন’, ‘৩৬ ঘণ্টে’, জিয়ো অউর জিনে দো’, ‘বন্দিশ’, ধর্ম অর কানুন’, ‘অগ্নিপথ’ ইত্যাদি। তাঁরও একটি মেয়ে আছে, নাম পেমা ডেনজংপা। তিনি একজন শিল্পপতি।

কুলভূষণ খারবান্দা ও শ্রুতি খারবানদা –

কুলভূষণ খারবান্দা হিন্দি ও পঞ্জাবি ছবির বিখ্যাত তারকা। ১৯৮০ সালের ‘সান’ ছবিতে তাঁর অভিনীত সাকাল চরিত্রটি খুবই জনপ্রিয়। ১৯৬০ সালে থিয়েটারের মাধ্যমে তাঁর অভিনয় জীবন শুরু হয়। তাঁর মেয়ের নাম শ্রুতি খারবানদা। তিনি এখনও অভিনয়ে আসেননি। তিনি একজন জুয়েলারি ডিজাইনার।

রঞ্জিত ও দিব্যাঙ্কা –

রঞ্জিতের আসল নাম গোপাল বেদি। ছোটো ও বড়ো পর্দার অভিনেতা রঞ্জিত। তিনি প্রায় ২০০টি হিন্দি ছবি করেছেন। তার বেশির ভাগটাই ভিলেন চরিত্র। তাঁর মেয়ের নাম দিব্যাঙ্কা, তিনি এক জন ফ্যাশন ও জুয়েলারি ডিজাইনার।

অমরীশ পুরি ও নম্রতা পুরি –

হিন্দি সিনেমা জগতের বিখ্যাত একটি নাম অমরীশ পুরি। বহু ছবিতে তাঁকে ভিলেন হিসাবে দেখা গিয়েছে। তাঁর অভিনীত ‘মোগাম্বো’ চরিত্রটি খুবই জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। তিনি হলিউড ফিল্মেও অভিনয় করে জনপ্রিয়তা লাভ করেছিলেন। তিনি তিনটি ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড পেয়েছিলেন। তাঁর মেয়ে নম্রতা পুরি। নম্রতা অভিনয় জগতে আসতে চান না। তিনি সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং পড়েছেন।

কিরণ কুমার ও সৃষ্টি –

কিরণ কুমার বহু রাজস্থানি, গুজরাতি, হিন্দি ছবিতে অভিনয় করেছেন। সৃষ্টি তাঁর মেয়ে। সৃষ্টি তাঁর মায়ের সঙ্গে ‘সুস অ্যন্ড সিস’ নামের গয়না ও জামাকাপড়ের ব্র্যান্ড চালান ও নিজে ফ্যাশন দুনিয়ায় স্টাইলিস্ট ও কনসালটেন্ট হিসাবে কাজ করেন।

প্রেম চোপড়া ও রকিতা, পুনিতা, প্রেরণা –

ভারতীয় ছবির ক্ষেত্রে আরও একটি বিখ্যাত নাম প্রেম চোপড়া। হিন্দি ও পঞ্জাবি ছবিতে তিনি অভিনয় করেছেন। ৫০ বছরের অভিনয় জীবনে তিনি ৩২০টি ছবিতে কাজ করেছেন। বেশির ভাগ ছবিতে ভিলেন হিসাবে কাজ করলেও তিনি আসলে খুবই মৃদুভাষী। তাঁর তিনটি মেয়ে রকিতা, পুনিতা, প্রেরণা। রকিতা বিয়ে করেছেন ফিল্ম পাবলিসিটি ডিজাইনার রাহুল নন্দাকে। পুনিতার বান্দ্রায় একটি প্রি-স্কুল আছে। তিনি গায়ক ও ছোটো পর্দার অভিনেতা বিকাশ ভাল্লাকে বিয়ে করেছেন। প্রেমা বিয়ে করেছেন অভিনেতা শরমন যোশীকে।

রাজ বব্বর ও জুঁহি বব্বর –

রাজ বব্বর হলেন হিন্দি ও পঞ্জাবি ছবির বিখ্যাত তারকা। ‘ইনসাফ কা তারাজু’ ছবিতে তাঁর অভিনয় খ্যাতি এনে দিয়েছিল। নায়কের পাশাপাশি পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করার সঙ্গেই একাধিক ছবিতে ভিলেনের ভূমিকায় দেখা গিয়েছে রাজকে। এর পর এসেছেন রাজনৈতিক দুনিয়াতেও। রাজের মেয়ে জুঁহি বব্বরও একজন অভিনেতা। তিনি দূরদর্শন ও বড়ো পর্দায় বেশ কিছু অভিনয় করেছেন।

দেখুন – এই ৮ বলিউড তারকার বাংলোর ভিতরটা দেখলে চোখ ধাঁধিয়ে যাবে
পড়তে পারেন – ‘দাবাং ৩’-এর টাইটেল ট্র্যাক মুক্তি পেতেই পুলিশের সাজে প্রীতি জিন্টা!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here