মুম্বই : সমালোচনার জালে তিনি বার বারই জড়িয়ে পড়েন।

সেন্ট্রাল বোর্ড অব ফিল্ম সার্টিফিকেশনের প্রধান পহলাজ নিহালিনিকে নিয়ে এ বার দু’টো গুজব ঘুরে বেড়াচ্ছে সংশ্লিষ্ট মহলে। এক হল, তিনি তাঁর পদ খোয়াতে চলেছেন। দুই হল, কোনো ছবিতে ধুমপান আর মদ্যপানের দৃশ্য থাকে তা হলে তা মুক্তির অনুমতি পাবে না। এই সব দৃশ্য নিষিদ্ধ করতে চলেছে সেন্সর বোর্ড।

প্রথমত পদ খোয়ানোর উত্তরে নিহালনি বক্তব্য হল, সরকারের এমন কোনো সিদ্ধান্তের কথা তিনি এখনও শোনেননি। ২০১৫ সালে তাঁকে এই পদে বহাল করার সিদ্ধান্ত সরকারেরই ছিল। সে দিন খবরটা তাঁর কাছে খুবই অপ্রত্যাশিত ছিল। কিন্তু তিনি খুব দ্রুত দায়িত্ব গ্রহণ করেছিলেন। নিজের সবটা দিয়ে সেই দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। তেমনই সরকার যদি তাঁকে সরানোর সিদ্ধান্ত নেন তা-ও তিনি সানন্দে গ্রহণ করবেন।

দ্বিতীয় প্রশ্নের ব্যাপারে তিনি স্পষ্ট বলেন, অভিনেতারা সমাজের আদর্শস্বরূপ। তাঁরা সমাজের পথপ্রদর্শক। তাঁদের লক্ষ্য করে এগোচ্ছে সমাজের লক্ষ লক্ষ মানুষ। তাঁরাই জনমানসে অভ্যাস গড়ে তোলেন। তাই পর্দায় ধূমপান, মদ খাওয়া এই সব তাঁদের মানায় না। উচিতও নয় এ সব করা। শুধুমাত্র ডিসক্লেমার দিয়েই এই দায়িত্ব পালন করা যায় না।  তাই চিত্রনাট্যের স্বার্থে খুব প্রয়োজন না থাকলে এই সব দৃশ্য ছবিতে ব্যবহার করা যাবে না।

ইতিমধ্যেই একাধিক কারণে বিতর্কে জড়িয়ে রয়েছেন নিহালনি। সম্প্রতি ‘জব হ্যারি মেট সেজল’-এর ট্রেলরে ইন্টারকোর্স শব্দ থাকার জন্যে দৃশ্য ছাঁটাইয়ের নির্দেশ দিয়েছিল সেন্সর বোর্ড। তার সঙ্গে রয়েছে ‘ইন্দু সরকার’ ছবিটি নিয়েও এমন নানা বিতর্ক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here