ওয়েবডেস্ক: তা হলে কি এ দেশে আক্ষরিক অর্থে বায়োপিক কোনো দিনই তৈরি হবে না? সব সময়েই ছবি তৈরি হবে বাণিজ্য এবং আরও নানা দিক মাথায় রেখে? ব্যাপারটা হতাশার হলেও এক সেমিনারে রাজকুমার হিরানির সাম্প্রতিক বক্তব্য সে রকমই ইঙ্গিত করছে। জানা যাচ্ছে, সঞ্জয় দত্তের ভাবমূর্তি শোধরানোর জন্য তিনি ছবিটা দু’বার বানিয়েছিলেন।

 

View this post on Instagram

 

‪Here is Ranbir as #Sanju in the 90’s. #RanbirKapoor #RajkumarHiraniFilms @VVCFilms @foxstarhindi‬

A post shared by SANJU (@themoviesanju) on

“প্রথম যখন ছবিটা বানাই, তখন বাস্তব যে রকম, সে রকম ভাবেই সবটা দেখিয়েছিলাম। কিন্তু প্রথম এডিট হয়ে যাওয়ার পর দলের সবাই যখন ছবিটা দেখল- বলল, নাহ, এ নায়ককে আমরা পছন্দ করতে পারছি না। বরং, ভীষণই ঘৃণা হচ্ছে এর কাজকর্ম দেখে। তখন আমার মনে হল, যে হেতু সঞ্জু ছবির নায়ক, সে জন্য লোকের ওকে পছন্দ করা উচিত। ওর জন্যে লোকের মনে করুণা আর দয়া আসা উচিত। তাই চিত্রনাট্য বদলে নতুন করে শুট করলাম ছবিটা”, দাবি হিরানির।

আরও পড়ুন: সঞ্জু: বায়োপিক তো নয়ই, অনেক জায়গায় তথ্যচিত্রের হুবহু টুকলি

তা, ঠিক কোন কোন জায়গা তিনি জুড়েছেন সঞ্জু-কে ভালো করে তোলার জন্য? “আদালতের রায় বেরিয়ে যাওয়ার পরে সঞ্জু যখন আত্মহত্যা করতে গেল, এই জায়গাটা যোগ করেছিলাম, উদাহরণ হিসাবে বলা যায়। ওটা প্রথমে চিত্রনাট্যে ছিল না”, এটুকু বলেই বাকিটা আড়ালে রেখে দিতে চাইছেন পরিচালক। পাশাপাশি আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য বলছেন- “তা বলে খারাপ দিকগুলো তো আর একেবারেই বাদ দিইনি। বন্ধুর প্রেমিকার সঙ্গে শুয়ে পড়া, নিজের প্রেমিকার গলায় কমোডের ঢাকনা বসিয়ে দেওয়া- এ গুলোও তো সাঙ্ঘাতিক কাজ!” কিন্তু বলুন তো, ‘সঞ্জু’-র বাস্তব বদলে দেওয়ার জন্য আপনি কি ক্ষমা করবেন হিরানিকে?

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন