খবরঅনলাইন ডেস্ক: রসিকতা করার জন্য আত্মরক্ষার কোনো প্রয়োজন নেই – সুপ্রিম কোর্টের পাঠানো  অবমাননা নোটিশের (contempt notice) জবাবে এ কথাই বললেন কমেডিয়ান কুনাল কামরা।

কুনাল কামরা (Kunal Kamra) গত বছর তাঁর কিছু টুইটে শীর্ষ আদালতের সমালোচনা করেছিলেন। তারই প্রেক্ষিতে শীর্ষ আদালত তাঁকে আদালত অবমাননার নোটিশ পাঠিয়েছিল। এই নোটিশের জবাবে তিনি ক্ষমা চাননি। বলেছেন, “রসিকতা তো বাস্তব নয় এবং বাস্তব হওয়ার দাবিও করে না।”

কুনাল কামরা বলেছেন, “রসিকতা করার জন্য আত্মরক্ষার প্রয়োজন হয় না। এর ভিত্তি হল কমেডিয়ানের উপলব্ধি।” তিনি বলেছেন, বিচার বিভাগের প্রতি জনগণের বিশ্বাস খাটো করে দেওয়ার কোনো উদ্দেশ্য তাঁর টুইটার পোস্টের ছিল না।

টুইটে কেন সমালোচনা সুপ্রিম কোর্টের

আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়ার পর সুপ্রিম কোর্ট টিভি অ্যাঙ্কর অর্ণব গোস্বামীর জামিন মঞ্জুর করায় শীর্ষ আদালতকে আক্রমণ করে কুনাল কামরা কিছু টুইট করেন। এরই প্রেক্ষিতে ওই কমেডিয়ানের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা দায়ের করা হয়। আট ব্যক্তি তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করেন, এঁদের বেশির ভাগই আইনজীবী।

গত মাসে সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court) কমেডিয়ান কুনাল কামরা ও কার্টুনিস্ট রচিতা তনেজাকে আলাদা আলাদা করে আদালত অবমাননার নোটিশ পাঠায় এবং জবাব দেওয়ার জন্য ছ’ সপ্তাহ সময় দেয়। ‘বিচারবিভাগকে কলঙ্কিত করার’ দায়ে কেন তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে না তার কারণ দর্শাতে বলা হয় তাঁদের। আদালত অবশ্য তাঁদের ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি দেয়।

সরকারের শীর্ষস্থানীয় আইনজীবী কেকে বেণুগোপাল বলেছিলেন, কামরার টুইট ‘কুরুচির পরিচয়’ এবং কৌতুক আর অবমাননার যে বিভাজনরেখা তা তিনি অতিক্রম করে গিয়েছেন।

আরও পড়ুন: ‘তাণ্ডব’-এর নির্মাতা, অভিনেতাকে সম্ভাব্য গ্রেফতারির হাত থেরে সুরক্ষা দেওয়ার আরজি ফেরাল সুপ্রিম কোর্ট

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন