ওয়েবডেস্ক: ১৮ নভেম্বর যখন সেজেগুজে দীপিকা পাড়ুকোন নববিবাহিত স্বামী রণবীর সিংয়ের হাত ধরে পা রাখলেন শ্বশুরবাড়িতে, তখন সবাই ভেবেছিলেন সত্যিই বড়ো বেশি গুজবের খবর রটছে তাঁদের নিয়ে! কেন না এর আগে খবর জানিয়েছিল- দীপিকা শ্বশুরবাড়িতে থাকবেন না, বরকে নিয়ে তিনি নিজের প্রভাদেবীর অ্যাপার্টমেন্টেই থাকবেন, যত দিন না জুহুর বাংলোর অন্দরসাজ সম্পূর্ণ হচ্ছে!

আরও পড়ুন: পঞ্জাবি বিয়েটা ধর্মমতে অসিদ্ধ, দীপবীরের আনন্দ করাজ নিয়ে ঘনাল বিতর্ক!

এখন কিন্তু দেখা গেল, সেই খবর ভুল কিছু বলেনি! স্রেফ ১৮ নভেম্বর রাতটা কোনো মতে ভাবনানিদের সঙ্গে শ্বশুরবাড়িতে কাটিয়েছেন দীপিকা। তার পরের দিন, ১৯ নভেম্বর বরকে টানতে টানতে নিয়ে গিয়েছেন নিজের প্রভাদেবীর অ্যাপার্টমেন্টে, আলো ফুটতে না ফুটতেই! সেখান থেকে ২০ নভেম্বর রওনা দিয়েওছেন বেঙ্গালুরুর বাপের বাড়িতে। খবর মাফিক, ২৮ নভেম্বর যে প্রীতিভোজটা হবে, তার তদারকির জন্য! কথা হল, বলিউড বলছে, সে তো করবে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট সংস্থা! তা হলে আর কয়েকটা দিন শ্বশুরবাড়ি থাকলে কী ক্ষতি হতো?

 

View this post on Instagram

 

Happiness ❤❤❤❤💚💜😍 #deepikapadukone #ranveersingh #DeepVeerKiShaadi @viralbhayani

A post shared by Viral Bhayani (@viralbhayani) on

যাই হোক, সে নায়িকার মর্জি! ঠিক যেমন বিয়েতে অতিথিদের কাছ থেকে উপহার না নিয়ে তাঁদের নিজের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনে টাকা দিতে বলাটাও! বলিউডের নিন্দুকরা কিন্তু বলছেন- এ সব কর বাঁচানোর চেষ্টা! বিয়েতে উপহার নিলে তার উপরে কর দিতে হতোই! কিন্তু এনজিও-তে অতিথিরা টাকা দিলে আর করের গল্প থাকে না! সত্যি, কী কাণ্ড না?

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here