বিয়ের আগে দীপিকার জবানবন্দি, জানিয়ে দিলেন কী করেছিলেন রণবীর কাপুরের সঙ্গে প্রথম দিনে

0

আরও পড়ুন: ছেলের বাড়ি থেকে দেওয়া হল ‘সব্যসাচী’র বিয়ের শাড়ি আর হিরের গয়না, বাগদান সেরে ফেললেন দীপবীর “তখন আমরা দু’জনেই নিজেদের প্রথম ছবির শুটিং করছি। আমি ওম শান্তি ওম আর রণবীর সাঁওয়ারিয়া। মজার ব্যাপার, একই মেক-আপ আর্টিস্ট আমাদের কাজ করতেন। তাঁর নাম ডরিস। ডরিস-ই আমায় রণবীরের কথা বলে। বলে, ও খুব মিষ্টি একটা ছেলে। তোমার সঙ্গে খুব ভালো মানাবে। এর পর এক দিন যখন ডরিস আমায় সাজাচ্ছে, তখন রণবীর ওকে ফোন করে। ডরিস কথা শেষ করে ফোনটা আমায় ধরিয়ে দেয়। আমরা টুকটাক কথা বলি, নম্বর বিনিময় করি। এর পর আচমকাই এক দিন রণবীর আমায় ফোন করে ডেট-এ যাওয়ার প্রস্তাব দেয়”, জানিয়েছেন দীপিকা। বেশ ভালো ব্যাপার, না? অনেকটা দূতী মারফত রাধা-কৃষ্ণ প্রেমের মতো? সে যা-ই হোক, ডেটে যান দীপিকা, মুম্বইয়ের হায়াত হোটেলের এক রেস্তোরাঁয়। “কথা ছিল লাঞ্চের। সেটা শেষ হয়ে ব্যাপারটা কফিতে গড়াল, তার পর চিজ কেকে, সেখান থেকে ছবি দেখায়। আমরা সে দিন মিস্টার বিনস হলিডে দেখেছিলাম। সেখানেই কিন্তু ব্যাপারটা থামল না। এর পর আমরা লং ড্রাইভে বেরোলাম। রাতে রণবীর আমায় বাড়ি পৌঁছে দিল”, স্মৃতির পথে হেঁটে পুরোনো কথার জানলা হাট করে খুলে দিয়েছেন নায়িকা। যদিও তাঁর বক্তব্য বলছে, এই ডেট হয়েছিল ২০০৭ সালের জুলাই মাসে, আর তার পর ২০০৮-এর ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত তাঁরা আর দেখাই করেননি। ২০০৮-এর ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে ফের দেখা-সাক্ষাৎ শুরু এবং সেখান থেকে পাকাপাকি প্রেম! ভালো কথা! কিন্তু আচমকা কেন প্রাক্তনের সঙ্গে কাটানো সময়ের স্মৃতিচারণায় আবিল হলেন দীপিকা? বলিউডের গুজব বলছে, বিয়ের আগে এ নায়িকার বিশেষ স্বীকারোক্তি! সবাইকে সবটা জানিয়ে পুরোনো অধ্যায় একেবারে শেষ করে রণবীর সিংয়ের সঙ্গে নতুন অধ্যায় শুরু করতে চান তিনি!]]>

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here