ওয়েবডেস্ক: দীপিকা পাড়ুকোন আর সলমন খানের মধ্যে যে খুব একটা সুসম্পর্ক রয়েছে, তেমনটা কোনো দিনই শোনা যায়নি। খবর সত্যি হলে বলতে হয়- সেই জায়গা থেকেই দীপিকা ‘সুলতান’ ছবিতে সলমন খানের নায়িকা হওয়ার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। শুধু তা-ই নয়, হবু স্বামী রণবীর সিং এবং সলমন খানের মধ্যে যখন ‘বাজিরাও মস্তানি’ সংক্রান্ত বিবাদ চলছিল, তখনও সমর্থন করেছিলেন রণবীরকেই।

এবং এই সূত্রে রণবীর সিং ‘বাজিরাও মস্তানি’ ছবির জন্য ফিল্মফেয়ার পুরস্কার পেলে সাংবাদিকরা যখন দীপিকার কাছে জানতে চান রণবীর আর সলমনের মধ্যে কে বড়ো অভিনেতা, দীপিকার উত্তর ছিল চমকে দেওয়ার মতো! “অবশ্যই রণবীর সিং! ও খুব কম সময়ের মধ্যে যে জায়গায় পৌঁছে গিয়েছে, সলমন খান তা পারেননি”, জানিয়েছিলেন নায়িকা!

sunshine in my turtleneck…😝☀️

A post shared by Deepika Padukone (@deepikapadukone) on

আরও পড়ুন:ইনশাল্লাহ! সলমন খানের সঙ্গে পরের ছবির নাম ঠিক করে ফেললেন বনশালি!

দীপিকার এক সময়ের মানসিক অবসাদ নিয়েও একটি সাক্ষাৎকারে প্রকারান্তরে সেই ঘটনার উল্লেখ করে বলেছিলেন সলমন, ‘আমি মানসিক অবসাদের মতো বিলাসিতাকে প্রশ্রয় দিতে পারি না’! “মানসিক অবসাদ কোনো বিলাসিতা নয়। যে কোনো অর্থনৈতিক স্তরের যে কোনো বয়সের মানুষের এই সমস্যা হতে পারে। আমার মনে হয় মানসিক অবসাদ নিয়ে যে সব কিংবদন্তি প্রচলিত রয়েছে, তা এ বার ভাঙা উচিত”, স্পষ্টাস্পষ্টি বলেছিলেন নায়িকা, সলমনের নাম না নিয়েই!

তাই বলিউড রয়েছে চিন্তায়- সঞ্জয় লীলা বনশালি এত দিন পরে সলমন খানের সঙ্গে ‘ইনশাল্লাহ’ নামে যে ছবি বানাচ্ছেন, দীপিকা কি সেই ছবিতে কাজ করতে রাজি হবেন? খবর বলছে, পরিচালক এই ছবিতেও দীপিকাকেই চাইছেন নায়িকা হিসাবে!

দেখা যাক! বনশালির ছবি যখন, তখন নায়িকার আপত্তি থাকার তো কথা নয়! ভালোই জানেন তিনি- চিত্রনাট্য সলমনের মতো তাঁকেও গুরুত্ব দেবে!

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন