ওয়েবডেস্ক: যে দাবি উঠেছে, তাকে মোটেই সহজ ভাবে নিলে চলবে না! কেন না, এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে কূটকচালির বেশ অনেকগুলো পরত!

কেন না, কিছু দিন আগেও মহানায়ক তকমাটা উত্তম কুমারের পরে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের জন্য বরাদ্দ ছিল না? এখন সেই দ্বিতীয় মহানায়কই নিজের জায়গাটা কি ছেড়ে দিলেন প্রযোজনা সংস্থার স্বার্থে?

আসলে নিজের সংস্থার প্রযোজনায় মহালয়ার ভোরের মহিষাসুরমর্দিনী নিয়ে উত্তম কুমার বনাম বীরেন্দ্রকৃষ্ণ ভদ্র দ্বৈরথ যখন ছবির বিষয় হয়ে দাঁড়াল, দেখা গেল, যে কোনো কারণেই হোক, উত্তম কুমারের চরিত্রটা পর্দায় করতে রাজি হলেন না প্রসেনজিৎ! সে কি ধারাবাহিকে উত্তম কুমার সেজে উপহাসের শিকার হওয়ার জন্য?

আরও পড়ুন: যিশু-প্রসেনজিতের হাত ধরে এক অন্য মহালয়ার সাক্ষী থাকতে চলেছে বাঙালি

যাই হোক, এখন তো সবাই জানেন- ‘মহালয়া’ ছবিতে নায়কের ভূমিকাটা পেয়েছেন যিশু ইউ সেনগুপ্ত! আর সেই উপলক্ষ্যে তাঁর আর উত্তম কুমারের মধ্যে কত মিল, সেই প্রচারে ব্যস্ত হয়েছেন সবাই! দুই নায়কই ব্যোমকেশ বক্সী সেজেছেন পর্দায়, এই মিলটুকু বোধহয় পর্যাপ্ত নয়!

খবর মোতাবেকে, ছবির পরিচালক সৌমিক সেন সম্প্রতি টাইমস গোষ্ঠীকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে দাবি তুলেছেন যে যিশুর স্টারডম না কি হুবহু উত্তম কুমারের মতোই! কী বলছেন তিনি?

“এ ধরনের চরিত্রে কাস্টিংয়ে লোকে দুটো ব্যাপার মাথায় রাখে- অভিনেতাকে চরিত্রটির মানুষের মতো দেখতে কি না, নয় তো, তাঁর সঙ্গে কোথাও মিল আছে কি না! আমি বেছেছি দ্বিতীয়টা- যিশু কিন্তু নায়কোচিত স্টারডমটা দারুন ক্যারি করে”, বলছেন সৌমিক! সে যা খুশি বলুন, তাই বলে উত্তম কুমারের সঙ্গে এ ভাবে তুলনা? কিছু বলবেন না এ ব্যাপারে?

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here