nusrat jahan

কলকাতা: ট্রোলড হওয়ার ভয়ে যে কোনো সামাজিক কারণেই আওয়াজ তুলতে কখনও ভয় পান না বলে জানালেন অভিনেত্রী-রাজনীতিবিদ নুসরত জাহান। সম্প্রতি ক্রিসমাসের শুভেচ্ছা জানানোর পর সমালোচনার জবাবও দিলেন টলিউড অভিনেত্রী।

তৃণমূল সাংসদ নুসরত গত বছরের জুনে সংসদে সাংসদদের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে হিন্দু রীতিতে সিঁদুর এবং ‘মঙ্গলসূত্র’ পরায় সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড হয়েছিলেন।

সংবাদ সংস্থা পিটিআইয়ের কাছে শনিবার নুসরত বলেন, “আমি সবসময়ই যে কোনো কারণে আমার মতামতের পক্ষে কথা বলার পক্ষে দাঁড়িয়েছি … আমি আমাদের সমাজে ঘটে যাওয়া ঘটনা সম্পর্কে আমার মতামত ব্যক্ত করার পক্ষে বিশ্বাস করি”।

গত বছর রথযাত্রার সময় ইসকনের অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার পরেও নুসরতকে কটাক্ষের শিকার হতে হয়। এ প্রসঙ্গে তাঁর সোজাসাপটা জবাব, “ট্রোল কখনোই আমার পথে বাধা তৈরি করতে পারেনি অথবা ট্রোলের কারণে কখনোই ভয় পাইনি … কারণ আমি ট্রোলিংকে কোনো গুরুত্ব দিই না”।

সম্প্রতি বড়োদিনের সময়েও কটাক্ষ শুনতে হয়েছে বসিরহাটের সাংসদকে। তিনি সাধারণ মানুষকে ক্রিসমাসের শুভেচ্ছা জানান। অভিযোগ ওঠে, সংসদে প্রতিনিধিত্ব করলেও বসিরহাটের জন্য তিনি কিছু করেন না।

সমালোচকদের পাল্টা দিতে তিনি টুইটারে লিখেছিলেন “আপনারা সত্যতাগুলি আবার যাচাই করুন .. পরের ৩ মাসে আমার কাজের প্রতিফলন দেখতে পাবেন … এক দিনেই পরিবর্তন আসে না … রাজনীতিবিদ বা অভিনেতারা জাদুকর নযন .. যে ভাবেই হোক .. আমি উদযাপন করি ইতিবাচকতা … স্পষ্টতই আপনি (সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর সমালোচকরা) করবেন না .. !! ঈশ্বর মঙ্গল করুন .. এবং কিছুটা জীবন দিন। ক্রিসমাসের শুভেচ্ছা নিন”।

গত ২৯ ডিসেম্বর জাহান একটি টুইটারে লিখেছিলেন, “আম্বেডকর সংবিধান লিখেছেন। মোদী এটাকে মুছতে চান”। এই ধরনের মন্তব্য় প্রশংসা ও সমালোচনা উভয়েরই জন্ম দিয়েছিল। এ দিন নুসরত জানান, “আমি সবসময় ভারতের পক্ষে কথা বলব যা জাতি, ধর্ম ও ধর্মবিশ্বাসের বাধার বাইরে। আমার অবস্থান কখনোই বদলাবে না”।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন