ওয়েবডেস্ক: “কোরিওগ্রাফার গণেশ আচার্যর আমায় নাচের স্টেপ দেখানোর কথা ছিল, কিন্তু বদলে নানা এসে আমায় জড়িয়ে ধরলেন, আমার শরীরের পিছন দিকে নিজেকে ঘষলেন সবার সামনে! তার পর আমার কোমর জড়িয়ে ধরে বললেন গণেশকে- দেখো, স্টেপ ঠিক হচ্ছে কি না! আমি ক্ষোভে মেক-আপ ভ্যানে চলে গিয়েছিলাম, আধ ঘণ্টা সুস্থ থাকতে পারিনি! পরে শুনলাম, নানা পরিচালককে পরামর্শ দিয়েছেন- আমার সঙ্গে ওঁর একটা উত্তেজক দৃশ্য রাখলে ছবি ভালো চলবে”, ২০০৮ সালে ঠিক কী হয়েছিল হর্ন ওকে প্লিজ ছবির সেটে তাঁর সঙ্গে, তা জানিয়েছিলেন তনুশ্রী দত্ত।

এই বিবৃতির পরে অনেকেই নানা রকম ব্যাখ্যা করেছেন ওঁর মেক-আপ ভ্যানে নিজেকে আটকে রাখা নিয়ে। রাখি সাওয়ান্ত তার মধ্যে তুলেছিলেন সব চেয়ে বিস্ফোরক দাবি। ঠিক কী বলেছিলেন তিনি, তা জেনে নিতে পারেন নীচের লিঙ্কে ক্লিক করে।

আরও পড়ুন: তনুশ্রী ড্রাগের নেশায় বুঁদ হয়ে ছিলেন, শ্লীলতাহানির কথা খারিজ করে নয়া দাবি রাখির!

কিন্তু সেই পর্ব পেরিয়ে এসে এ বার ছবির প্রযোজক সামি সিদ্দিকি এক স্টিং অপারেশনে মন্তব্য করলেন- “আমি বলছি তো, পিরিয়ড চলছিল বলে তনুশ্রী এত কিছু করেছে!” কুৎসিত মন্তব্য, সন্দেহ নেই। কিন্তু ছবির সঙ্গে যুক্ত একেকজনের একেক রকম বত্তব্য কি তনুশ্রীর সমর্থনেই যাচ্ছে না? ভিডিওটা দেখুন, আপনার কী মনে হয়?

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন