অন্য মহিলাদের দিকে তাকালে কাজল ঠিক কী বলেন! ‘দে দে প্যায়ার দে’ মুক্তি পাওয়ার আগে জানালেন অজয় দেবগন

ajaykajal
কাজল ও অজয়

ওয়েবডেস্ক : মুক্তি পেতে চলেছে অজয় দেবগন অভিনীত ছবি ‘দে দে প্যায়ার দে’। তাতে ৫০ বছরের অভিনেতাকে দেখা যাবে নিজের অর্ধেক বয়সের এক জন মহিলার সঙ্গে ডেটিং করছেন।

এমন সম্পর্ক কি বাস্তব জীবনেও আছে?

প্রশ্নের উত্তরে অজয় ইন.কমকে বলেন, কখনোই না। তবে হ্যাঁ, সুন্দরী মহিলাদের দেখে আকর্ষণ বোধ করেন। এটা তো স্বাভাবিক।

তিনি বলেন, “কখনোই মাথা ঘুরিয়ে নেওয়া যাবে না। এমন তো বলা যাবে না যে, কখনোই আকর্ষণ বোধ করি না”।

তা হলে যখন তিনি স্ত্রী কাজলের কাছে ধরা পড়ে যান তখন? অন্য মহিলাদের দিকে ফ্যালফ্যাল করে তাকিয়ে থাকতে দেখে কাজল ঠিক কী বলেন?

আরও পড়ুন – বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙেছে কারা? পাল্টা ভিডিও প্রদর্শনী শিক্ষামন্ত্রীর

অজয় বলেন, তিনি কিছু একটা মন্তব্য পেশ করেন। সেটা রসিকতার ছলে।

এই নতুন ছবির ট্রেলার দেখে কাজল কী বলছেন?

এই প্রশ্নের উত্তরে অজয় বলেন, ঠিকই আছে। দেখেছেন। তিনি তো সিনেমা জগতেরই এক জন সদস্য। ফলে সবটাই জানেন কোনটা কী ভাবে হয়।

হিন্দুস্থান টাইমস-কে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে তিনি তাঁদের দাম্পত্য জীবনের কথাও বলেন। তাঁদের বিয়ের ২০ বছর পেরিয়ে গিয়েছে। এখন তো একে অপরকে খুব ভালো করেই বোঝা যায়। একে অন্যকে কিছু না বলেও মনের পরিস্থিতি  দু’জনেই দু’জনেরটা খুব ভালো করে বোঝেন।

অন্য দিকে কাজল তাঁদের বিবাহিত জীবনের সম্পর্কে বলেন, বিবাহিত জীবনের শুরুটা গোলাপ বিছানো থাকে না। প্রথম দিকে একে অপরকে বুঝতে আর বোঝাতে হয়। সম্পর্কের মধ্যে থেকে দু’জনে দু’জনের ভালোমন্দ সব দিকগুলিকে উপলব্ধি করতে হয়। এই ভাবেই পরের ধাপে এগিয়ে নিয়ে যেতে হয়। ঝড় কেটে যাওয়ার পরে একটা পরিচিত রুটিন হয়ে যায় জীবনে। তখনই সম্পর্ক দৃঢ় হয়। এখন সম্পর্কের একটা শক্ত ভিত বা কাঠামো আছে। এটিকে যত্ন করতে হবে।

যাই হোক ‘দে দে প্যায়ার দে’ ছবি মুক্তি পেতে চলেছে ১৭ মে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.