ওয়েবডেস্ক: আদতে এ আরেকটি প্রেমের গল্প! যদিও শাহরুখ খানের ছবিতে প্রেম যে ভাবে আসে, সে ভাবে নয়! সেই জন্যই সখেদে এক বাঙালি লিখেছেন ইন্সটাগ্রামে- শাহরুখ খান তাঁর জীবন ধ্বংস করে দিয়েছেন!

অকপটে জানিয়েছেন মেয়ে, ছোটোবেলা থেকেই শাহরুখ খানের ছবি দেখে দেখে তাঁর মনে হত- যে দিন প্রেম আসবে, সারা পৃথিবী হয়ে উঠবে অন্য রকম! বাতাসে বেহালার ছড় টানবে অদৃশ্য এক হাত, মধুর ধ্বনিতে পূর্ণ হবে চরাচর। আর মনের মানুষটি যখন ধীর পদক্ষেপে এগিয়ে আসবেন তাঁর দিকে, তখন আচমকাই উতলা হয়ে উঠবে হাওয়া- উড়িয়ে দেবে মেয়েটির চুল আর মনের সব দ্বিধা। তার পর সেই মানুষটি হাঁটু গেড়ে বসে প্রেমের প্রস্তাব দেবেন তাঁকে!

shah rukh khan

“কিন্তু এ সবের কোনোটাই আমার সঙ্গে হল না! উল্টে নানা গোলযোগের মধ্যে দিয়ে আমি আমার বাঙালি মা আর বাবাকে এক পঞ্জাবি বেনেকে বিয়ে করা যে ভুল সিদ্ধান্ত নয়, সে ব্যাপারে রাজি করাতে থাকলাম। এ ভাবেই সময় কেটে যাচ্ছিল। এবং বুঝতে পারলাম, সম্পর্কটা এ বার এগিয়ে চলেছে বিয়ের দিকে”, লিখেছেন সেই মেয়ে।

এর পরেই যাকে বলে মরিয়া হয়ে ওঠেন তিনি! ফিল্মি প্রেমপ্রস্তাব জীবনে যে চাই-ই চাই! তাই পুরুষটির কাছ থেকে সেটা না এলেও উদ্যোগ নিজেই নিলেন মেয়ে!

shah rukh khan

“আমি একটা সারপ্রাইজ পার্টির আয়োজন করলাম। ডিজে-কে বললাম ব্রুনো মার্সের ম্যারি মি গানটা বাজাতে। তার পর যে-ই না সে ঘরে ঢুকল, আমি হাঁটু গেড়ে বসে পড়লাম। আর চেঁচিয়ে বললাম, আশিস আগরওয়াল, আমি আমার সারা জীবনটা তোমার সঙ্গে হাসে, কেঁদে আর ঝগড়া করে কাটাতে চাই! তুমি কি আমায় বিয়ে করবে?”

এর পরের ঘটনা যদিও জীবন ধ্বংস হওয়ার নয়। মেয়েটি লিখেছেন, এর পরে আশিস তাঁকে দাঁড় করান। এবং জড়িয়ে ধরে কানে কানে জিজ্ঞাসা করেন- “আমাদের সন্তানরাও তোমার মতো ফিল্মি হবে না তো?”

একেই বোধ হয় বলে, সব ভালো যার শেষ ভালো! তবে শাহরুখ খান কী ভাবে তছনছ করে দিয়েছেন মেয়েটির প্রেম নিয়ে সব ভাবনা, তা অস্বীকার করার নয়!

“Shahrukh Khan ruined my life! Since I was a little girl, I always dreamed of having the ‘perfect proposal’ from the perfect man. Violins would start playing in the background, he would walk up to me slowly, while the wind blew in my hair, fall to his knees and hand me the ring. But that never happened. In fact, we found ourselves in the middle of this mess where I was trying to convince my Bengali parents to let me marry a Punjabi Baniya! We’d been dating for 3 years, but the majority of that time was spent on bringing our families together. At one point in our relationship, we were sure that we were going to get married –so he never even tried to ‘surprise’ me with a proposal. Amidst all this drama of a big, fat Indian wedding, I realised– I never had my filmy moment! So, on his birthday, I decided to take the matter into my own hands. I planned a surprise party at the restaurant where we had our first date, and as soon as he walked in– I asked the DJ to play “Marry Me” by Bruno Mars and fell to my knees when he walked in. I said ‘Ashish Aggrawal– I want to spend the rest of my life laughing, crying and fighting with you– will you marry me?’ He looked at me, smirked, pulled me in for a hug and whispered – ‘let’s hope our kids aren’t as filmy!’ And just like that, I created the moment I’d been waiting for..why do women have to wait for the guy to propose? It’s a new day, new age– if you like him, then maybe you should put a ring on it!”

A post shared by Humans of Bombay (@officialhumansofbombay) on

আপনার কী মনে হয়?

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here