kangnarangolisunayna
কঙ্গনা, রঙ্গোলী, সুনয়না

মুম্বই : সম্প্রতি কতগুলি টুইট শেয়ার করেছেন বলিউড নায়িকা কঙ্গনা রানাউতের বোন রঙ্গোলি চান্ডেল। তাতে তিনি কুল্লুতে নিজেদের বাড়ি তৈরির বিষয়ে নানান কথা বলেছেন। তবে কথা বলতে বলতেই মোড় ঘুরেছে অন্য দিকে। তিনি কথা বলতে শুরু করে দিয়েছেন হৃত্বিক রোশনের বোন সুনয়না রোশনকে নিয়ে। তাতে তিনি দাবি করেছেন, কঙ্গনা আর তাঁর কাছে ক্ষমা চেয়েছেন সুনয়না। 

টুইটে রঙ্গোলি লিখেছেন, অজয় এবং তিনি কুল্লুতে যে বাড়িটি করছেন তার জন্য নকশা ঠিক করা থেকে আর্থিক সাহায্য সবই যথাসাধ্য করছেন কঙ্গনা। কঙ্গনা এমনই এক জন মানুষ যিনি অন্যের জন্য নিজের সব দিতে পারেন। তাঁকে ভালো না বেসে থাকা যায় না। ইত্যাদি।

সবই ঠিক ছিল। এই সব কথা হতে হতেই এক জন মন্তব্য করেছেন, আরে ইয়ার, ভাইবোনরা যদি একে অপরকে সাধ্য মতো সাহায্য না করে তা হলে কে করবে। এটা তো খুবই সাধারণ ব্যাপার।  

এখানেই হল গণ্ডগোল। এই কথার উত্তরে রঙ্গোলি হৃত্বিক রোশোনের বোন সুনয়নাকে নিয়ে কথা বলতে শুরু করেন। ওই টুইটের উত্তরে তিনি লেখেন, এতটাও স্মার্ট হওয়ার চেষ্টা করে লাভ নেই। সব ভাই বোনের মধ্যে এত ভালোবাসার সম্পর্ক থাকে না। হৃত্বিকের বোন সুনয়না ক্ষমা চাওয়ার জন্য কঙ্গনা ও তাঁকে কল করেছিলেন এবং ম্যাসেজও করেছিলেন। ক্ষমা চাওয়ার কারণ হৃত্বিকের সঙ্গে সমস্যার সময় সুনয়না কঙ্গনার পাশে দাঁড়াননি।

আরও পড়ুন – সমালোচিত রণবীর কাপুরের ‘ঢাল’ হিসাবে এগিয়ে এলেন সেই অনুরাগীই

উল্লেখ্য সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে সুনয়না বলেছেন, পরিবার তাঁকে সাহায্য করছে না। তাঁর বাবামায়ের সঙ্গে বাস করা নরকে বাস করার সমান হয়ে উঠেছে।

এদিকে রঙ্গোলী টুইটে লিখেছেন, হৃত্বিক আর সুনয়নার সম্পর্কের টানাপোড়েন নিয়ে। সুনয়নার বাইপোলার রোগ সম্পর্কে। এই রোগের নিয়ে তাঁর পরিবারের দৃষ্টিভঙ্গির ব্যাপারেও। শেষে লিখেছেন, সব ভাইবোনের মধ্যে ভালো সম্পর্ক হয় এমন কথা বলার কোনো দরকার নেই।    

সম্প্রতি একটি টুইট বার্তায় একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন সুনয়না। লিখেছিলেন, ‘আমাকে দেখে কী অসুস্থ মনে হচ্ছে’?

প্রসঙ্গত, তিনি একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, হঠাৎ হঠাৎ মেজাজ বদল হওয়ার মতো কোনো রকম বাইপোলার রোগে তিনি ভুগছেন না। তিনি ডায়েট করে ওজন কমিয়েছেন। কিন্তু শারীরিক এবং মানসিক ভাবে তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ। তিনি অসুস্থ হলে কখনও একটি হোটেলে থাকতেন না।   

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here