ওয়েবডেস্ক: দিন কয়েক ধরে তিনি জোর আলোচনায়। ইরানের চিত্রপরিচালক মাজিদ মাজিদি। ৪৮ তম আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে দেখানো হচ্ছে ভারতে তৈরি মাজিদির প্রথম ছবি ‘বিয়ন্ড দ্য ক্লাউডস’। বছরের শুরুতে এ ছবি নিয়ে রীতিমতো হইচই পড়ে গিয়েছিল। দীপিকা পাড়ুকোন অভিনয় করতে চলেছেন মাজিদির ছবিতে, এমন খবর রটে গিয়েছিল সারা দেশ জুড়েই। হ্যাঁ, মাজিদির ছবির জন্য অডিশন দিয়েছিলেন দীপিকা। কিন্তু শেষমেষ ছবিতে দেখা গেল মালায়লি অভিনেতা মালবিকা মোহনানকে। বলিউডের পদ্মাবতী কেন ব্রাত্য হলেন? “নামী তারকা নিয়ে কাজ করা সম্ভব ছিল না। আমার ছবির জন্য যে সব লোকেশন বাছি, দীপিকার পক্ষে সেখানে গিয়ে শুট করা সম্ভব হত না। সুপারস্টারদের নিয়ে মানুষের বড্ড কউতুহল”, জানালেন অস্কার মনোনীত ছবি ‘চিলড্রেন অব হেভেন’-এর পরিচালক।

আরও পড়ুন; কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানির পদবী নিয়ে মজা করে বিতর্কে অভিনেতা রাজকুমার রাও

পানাজির চলচিত্র উৎসবের মঞ্চে ইরানি পরিচালক জানালেন, “আমার ছবিতে লোকেশন নিজেই একটা চরিত্র হয়ে ওঠে। তাই সেটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার আমার কাছে। আমার ছবির নায়ক সমাজের বাইরে নয়, তাই অধিকাংশ সময়ে নতুন মুখ নিয়ে কাজ করতে পছন্দ করি। দীপিকা অত্যন্ত প্রতিভাবান অভিনেতা সত্বেও ওঁকে ছবিতে নিতে পারলাম না। কিন্তু ওঁর পেশাদারিত্ব প্রশংসনীয়। আমার প্রযোজক বলেছিলেন দীপিকা নিজে আগ্রহ দেখিয়েছেন, তাই অডিশন নেওয়া হয়েছিল ওঁর”।

‘বিয়ন্ড দ্য ক্লাউডস’ ছবির একটি দৃশ্য

 

মানুষের সঙ্গে মানুষের সম্পর্ক, মূল্যবোধ পর্দায় ফুটিয়ে তোলায় মাজিদির মুন্সিয়ানা সমসাময়িক আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্রের মঞ্চে তাঁর জায়গা সুনিশ্চিত করেছে। তবু মাজিদির সাম্প্রতিক ছবি, ‘বিয়ন্ড দ্য ক্লাউডস’ নাকি চেনা ছক ভেঙ্গেছে অনেকটাই। সমালোচকরা বলছেন, স্বতন্ত্র স্টাইল ছেড়ে মাজিদি  ‘বলিউডি মেলোড্রামা’ ব্যবহার করেছেন এই ছবিতে। ‘চিলড্রেন অব হেভেন’-এর মতো এ ছবিও দুই ভাইবোনকে ঘিরেই। তারা আর আমির। ভাইকে বাঁচাতে গিয়ে জেল হয়ে যায় বোনের। মাজিদির পরবর্তী ছবিও এই দেশেই, যে দেশকে তিনি বলেন ‘ল্যান্ড অব স্টোরিজ’। “এত গল্প রয়েছে দেশটায়, সে সব গল্প নিয়ে কেন যে ছবি হয় না!”, আক্ষেপের সুর মাজিদির গলায়।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here