ওয়েবডেস্ক : পেয়ার কিয়া তো ডরনা কেয়া? ভালোবাসায় আবার ঢাক ঢাক গুর গুর কিসে? ঠিক এই থিওরিতেই চলেন দু’ জন।

লাভ স্টোরি কার? আরে দীপিকা আর রণবীরের। দু’ জনের কেউ কখনওই একে অপরের প্রতি ভালোবাসার কথা লোকসমক্ষে লুকোননি। তবে এ বার আর শুধু ভালোবাসার কথাতেই থেমে থাকেননি। একে অপরের সঙ্গে থাকলে যে গোটা জগতের যা খুশি হয়ে যাক, তাতে তাঁদের বলতে গেলে কিছুই যায় আসে না সে কথা খুলে আম নিজের মুখেই বলে দিলেন দীপিকা।

কিছু দিন আগে তিনি অবশ্য বলেছিলেন, বিয়ে যদি করতেই হয় তা হলে বনসলিকেই করবেন। না। কিন্তু সেটা অবশ্য তাঁর মুখের কথা, মনের কথা নয়। খেলার ফাঁদে তো কত কিছুই করতে হয়, তা বলে দোষ ধরলে হয়?

তিনি তো রণবীরে নিবেদিত প্রাণা।

তাঁর বয়ানে, রণবীরের সঙ্গে থাকলে আর কিছুই লাগে না। আর কাউকেই লাগে না। একে ওপরের সঙ্গে তাঁরা খুব ভালো থাকেন। বি টাউনের এই সুন্দরী বলেন, রণবীরের মধ্যে সবটাই ভালো। তাঁর বড়োদের মতো আচরণ, ছেলেমানষি সবটাই পছন্দ দীপিকার। এমনকি রণবীরের নীরবতাও অনুভব করেন তিনি।

বছর চারেক আগে শুটিং সেটেই একে অপরের হৃদয়ে হৃদয় রেখেছিলেন। এখন তা আরও মজবুত হয়েছে।

সম্পর্কটা কি বিয়ে অবধি গড়াবে? না সে ব্যাপারটা খুব একটা স্পষ্ট নয় ৩১-এর এই অভিনেতার নিজের কাছেই।

তা হলে কে? বনসলি না রণবীর? সে তো সময়ই বলবে।

তার আগে যে দীপিকা মানেই ‘পদ্মাবতী’-র বিতর্ক, সেটার নিষ্পত্তি হোক।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here