ওয়েবডেস্ক: ছবিটায় নুসরত জাহানকে একটু অন্য রকম দেখতে লাগছে না? মনে হচ্ছে না- এটা নায়িকার বেশ পুরনো ছবি? অন্তত বছর কয়েক আগের?

তা, মনে হলে দোষ দেওয়া যাবেও না! সত্যিই তো, ছবিটা নায়িকার বেশ কয়েক বছর আগের! তা হলে বিয়ের খবরটাও গুজব, সত্যি নয়?

উঁহু! সেটা কিন্তু বলা যাচ্ছে না। কেন না, টলিপাড়ার গোপন খবর যা বলছে, তা বিশ্বাস করলে বলতে হয় যে ভিক্টর ঘোষের সঙ্গে বিয়েটাও নুসরত জাহান সেরে ফেলেছেন বেশ কয়েক বছর আগেই! পাক্কা ছয় বছর হল বিবাহিত জীবন কাটাচ্ছেন নায়িকা!

ভিক্টর ঘোষ? তা তাঁর সঙ্গে সম্পর্কের কথা তো কখনও অস্বীকার করেননি নায়িকা! বরাবরই ভিক্টরকে তিনি নিজের সঙ্গী হিসাবে পরিচিতি দিয়ে এসেছেন। সবাই এ-ও জানেন যে, দু’জনে একসঙ্গে থাকেনও একই ছাদের তলায়। অনেক বছর ধরেই তাঁরা রয়েছেন লিভ-ইন সম্পর্কে।

সেই লিভ-ইন প্রসঙ্গেই এ বার কথা চাউর হয়ে গিয়েছে টলিপাড়ার অন্দরমহলে। বলা হচ্ছে, ব্যাপারটা লিভ-ইন নয়, দস্তুর মতো বিবাহিত জুটির একত্রে বসবাস! যুক্তি দেখানো হচ্ছে, জামশেদপুরের অসামরিক বিমান পরিবহণের সঙ্গে যুক্ত ঘোষ পরিবারের এই ছেলেটির সঙ্গে রীতিমতো বিবাহ-বন্ধনে আবদ্ধ নুসরত!

“ওঁরা প্রকৃত অর্থেই দম্পতি। তবে নানা পেশাদার ও ব্যক্তিগত কারণে এই বিয়ের কথা নুসরত স্বীকার করেন না। কিন্তু এই বিয়ের কথা নুসরতের সব ঘনিষ্ঠ বন্ধুরাই জানেন। এমনকী, নুসরতের বুকের ট্যাটুতে ভিক্টরের নামও লেখা আছে”, জানিয়েছেন নায়িকার এক কাছের মানুষ।

nusrat jahan
বন্ধুদের সঙ্গে নুসরত আর ভিক্টরের পার্টি

এ-ও জানা গিয়েছে যে, ভিক্টরের সঙ্গে নুসরতের বিয়েটা হয়েছিল ডিসেম্বর মাসে। তবে সাম্প্রতিক নয়, তা ছয় বছর আগের ডিসেম্বরের কথা। তার পরেই ভিক্টর জামশেদপুরের পৈতৃক বাড়ি থেকে পাকাপাকি ভাবে চলে আসেন কলকাতায়। দু’জনে মিলে সংসার পাতেন বালিগঞ্জের অভিজাত পাড়ার একটি ফ্ল্যাটে।

নায়িকাকে এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি কী বলছেন?

প্রাথমিক ভাবে বিয়ের খবরটা অস্বীকার করলেও নুসরত কিন্তু একটা খবর জানাতে ভোলেননি। সেটা হল এই যে দু’জনের বাগদান পর্বটি ইতিমধ্যেই সাঙ্গ হয়ে গিয়েছে।

“যে দিন আমি বিয়ে করব, গোটা কলকাতাকে ফলাও করে তা জানাব। সমস্ত রীতি মেনে সাত দিন ধরে বিয়ে করব আমি। আমরা গত ছয় বছর ধরে লিভ-ইন করছি, আর পরের বছরের মধ্যেই বিয়েটাও করে ফেলব! আমাদের বাগদান হয়েই গিয়েছে, দুই পরিবারও হামেশাই একসঙ্গে সময় কাটান”, জানিয়েছেন নুসরত!

অবশ্য শুধু নায়িকা একাই নন, ভিক্টরও এই বিয়ের কথা পারতপক্ষে তোলেন না। যে কারণে তাঁর ফেসবুক ‘স্টেটাস ইন আ রিলেশনশিপ’ করা রয়েছে!

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here