sharmila tagore

ওয়েবডেস্ক: সবে তো বছরখানেক হল মা হয়েছেন বেগম বেবো! আর তাঁর ননদ সোহার কোল আলো করে মেয়ে এল এই সেদিন, চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে। এর মধ্যেই তাহলে ফের মা হতে চলেছেন কে?

সম্ভাবনার আঙুলটা করিনা কাপুর খানের দিকেই ওঠে! অনেকেই বলাবলি করছেন, অমৃতাকে যেমন দুই সন্তান উপহার দিয়েছেন সইফ আলি খান, তেমনটাই হতে চলেছে করিনার বেলায়ও! এ ব্যাপারে প্রাক্তন এবং বর্তমান- দুই বেগমকেই সমান জায়গায় রাখবেন নবাব। ফলে, পতৌদি গ্রামে, পূর্বপুরুষের প্রাসাদে প্রথম জন্মদিন কাটাতে যে-ই গেল তৈমুর, সবাই উদগ্রীব হয়ে পড়লেন খুদের ঠাকুমাকে নিয়ে।

এবং এই কৌতূহল দেখে মুখ খুলতেও বাধ্য হলেন শর্মিলা ঠাকুর। তবে সরাসরি উষ্মা প্রকাশ করলেন না। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর হাসিমুখেই দিলেন তিনি। “জানতে চাইছেন, তৈমুর ভাই বা বোন পেতে চলেছে কি না? তা, শুধু তৈমুর কেন, আমার মেয়ের ঘরের নাতনি ইনায়াও তো তাহলে ভাই বা বোন পাবে! তবে আমি বলি কী, এখনই তার কোনো সম্ভাবনা দেখতে পাচ্ছি না। আমি কেবল দেখছি, তৈমুর আর ইনায়া পরস্পরকে পেয়েছে”, একগাল হেসে জবাব বেগম আয়েষার।

সেই সঙ্গে তৈমুরের জন্মদিনের উদযাপন নিয়েও জানালেন কয়েক কথা। বললেন, “নেহাতই ছোটো বলে জন্মদিনটা ঘরোয়া ভাবে পালন করা হবে। আমরা থাকছি। করিনার বাপের বাড়ির লোকজনরা থাকবেন। ব্যস, এই তো! আসলে তৈমুর খুব ছোটো তো, এখনই ওকে ভিড়ের মাঝে রাখা উচিত হবে না”, মন্তব্য ঠাকুমার!

একই বক্তব্য পিসিরও। সাংবাদিকদের জানিয়েছেন সোহা, “বাচ্চারা আসলে ভিজে সিমেন্টের মতো হয়। চট করে খারাপ কিছুর ছাপ তাদের মনে পড়ে। তাই বাচ্চাদের আমরা খ্যাতির আলোয় বড়ো করতে চাইছি না। সেই জন্য জন্মদিনটাও হবে সাদামাটা!”

যা দেখা যাচ্ছে, মায়ের মুখশ্রী যেমন পেয়েছেন, তেমনই চিন্তা-ভাবনার ধরনটাও পেয়েছেন সোহা! তাই না?

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here