Shilpa Shetty Kundra

ওয়েবডেস্ক: যা দেখা যাচ্ছে, মাতৃত্ব বরাবরই একটা সমস্যায় ফেলেছে শিল্পা শেঠি কুন্দ্রাকে। প্রথম বার যখন গর্ভধারণ করলেন তিনি, সেবার সুখের বদলে জীবনে এল বিষাদ। গর্ভেই বিনষ্ট হয়ে গিয়েছিল সেই সন্তান। তার পরে যখন মা হলেন শিল্পা, তখনও তাঁকে থাকতে হয়েছিল সাবধানে, চিকিৎসকদের কড়া নজরদারিতে। সে সব পেরিয়ে এসে এবার কী হল নায়িকার সঙ্গে?

হবে আর কী! আবার মা হওয়ার খবর পেয়ে ছোটো বোন শমিতা শেঠি যখন দিদিকে শুভেচ্ছা জানাতে ব্যস্ত, মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ল তাঁর! কারণ আর কিছুই নয়। তিনি নিজেও যে জানেন না ফের মা হতে চলেছেন! তা হলে?

এই খবর চাউর করার পিছনে আসলে হাত রয়েছে চলচ্চিত্র পরিচালক অনুরাগ বসুর। ‘সুপার ডান্সার চ্যাপ্টার ২’-এর বিচারক হিসেবে রোজই এখন তাঁর দেখা হয় শিল্পার সঙ্গে। শিল্পাও রয়েছেন এই রিয়ালিটি শোয়ের বিচারকমণ্ডলীতে। সেখান থেকেই দেখা দিল প্রমাদ।

জানা গিয়েছে, শুটিংয়ের মাঝে একদিন ফোনটা ফেলে রেখেছিলেন শিল্পা। তাঁর সঙ্গে সেটা ছিল না। ফাঁক পেয়েই ফোন হাতিয়ে অনুরাগ সোজা মেসেজ পাঠান শমিতাকে- ‘আমি প্রেগন্যান্ট’! দিদির ফোন থেকে মেসেজটা পাওয়ায় শমিতাও খবরটা সত্যি বলেই ধরে নেন। তার পর ফোন করতে থাকেন দিদিকে।

শমিতার ফোন পেয়ে প্রথমে কিছুই বুঝতে পারছিলেন না শিল্পা। এ দিকে শমিতাও তাঁর বক্তব্যে অনঢ়। অবশেষে ঝুলি থেকে বিড়াল বেরোল অনুরাগ বসুর অট্টহাসিতে। আর থাকতে না পেরে শিল্পাকে ঘটনাটা জানিয়েই দিলেন তিনি। বলা বাহুল্য, শিল্পা-শমিতার এই বোকা হওয়ার ঘটনা নিয়ে হাসাহাসি চলল কিছু দিন!

অবশ্য এটাই প্রথম নয়, এ রকম বদ রসিকতা শিল্পার সঙ্গে হামেশাই করে থাকেন অনুরাগ। এর আগেও একবার ট্রান্সমিটারের ব্যাটারি খুলে নিয়ে নায়িকাকে বিপাকে ফেলেছিলেন অনুরাগ। সে বার নিজের মনিটরের স্ক্রিনে কোনো কিছুই শুনতে পাচ্ছিলেন না নায়িকা।

যা-ই হোক, আপাতত সব কিছু শান্ত। রসিকতার পালা মিটিয়ে ফের চলছে শুটিংয়ের পালা! যদিও শিল্পা বুঝতে পেরেছেন বিলক্ষণ – মা হওয়া মোটেই মুখের কথা নয়!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here