ইজরায়েলি বয়ফ্রেন্ডের সন্তানের মা হতে চলেছেন বলিউড অভিনেত্রী

kalki koechlin
কালকি কোয়েচলিন। সমস্ত ছবি ইনস্টাগ্রাম থেকে

ওয়েবডেস্ক: ইজরায়েলি বয়ফ্রেন্ড গাই হার্সবার্গের সন্তানের মা হতে চলেছেন বলিউড অভিনেত্রী কালকি কোয়েচলিন। এটিই তাঁদের প্রথম সন্তান। হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কালকি জানিয়েছেন, তিনি পাঁচ মাসের অন্ত‌ঃসত্ত্বা। পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপের সঙ্গে বছর চারেক আগে বিবাহবিচ্ছেদ হয় কালকির।

২০১১ সালের এপ্রিল মাসে বিয়ে হয় কালকি-অনুরাগের। বছর দুয়েক বাদেই, ২০১৩ সালের নভেম্বরে যৌথভাবে বিবৃতি দিয়ে তাঁরা বিচ্ছেদের কথা ঘোষণা করেন। তবে পাকাপাকি ভাবে ২০১৫ সালে তাঁদের ডিভোর্স হয়। তার পর থেকেই ইজরায়েলি পিয়ানিস্ট হার্সবার্গের সঙ্গে কালকির নতুন সম্পর্কের কথা সংবাদ মাধ্যমে উঠে আসে। তাঁদের ডেটিংয়ে যাওয়ার খবরও প্রায়শই শোনা যায়।

ওই সাক্ষাৎকারে কালকি জানিয়েছেন, এ বছরের শেষের দিকেই তিনি গোয়ায় যাবেন। সেখানে প্রাকৃতিক পদ্ধতিতে প্রসবের জন্য হাসপাতাল রয়েছে। ওয়াটার বার্থ পদ্ধতিতেই তিনি নিজের সন্তানের জন্ম দেবেন। তবে এখন থেকেই কালকি-হার্সবার্গ জুটি সন্তানের নাম ঠিক করে রেখেছেন। যেটি কন্যা অথবা পুত্র উভয়ের জন্যই সমান ভাবে প্রযোজ্য।

View this post on Instagram

It's always a Sunday when I'm with my favourite caveman🥰

A post shared by Kalki (@kalkikanmani) on

কালকির কথায়, “আমি এমন একটি নাম বেছে নিয়েছি যা উভয়ের লিঙ্গের সঙ্গেই মানানসই এবং একই ভাবে এটি সমকামী ব্যক্তির প্রতিনিধিও, কারণ আমি চাই সমস্ত লিঙ্গের ছাতার নীচে চলাচল করার স্বাধীনতা থাকবে আমার সন্তানের”।

ছ’বছর আগে, কালকি ম্যাগাজিনে মাতৃত্বের ধারণার বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করেছিলেন। দুয়ের ঘরের বয়সের প্রথম দিকে বিয়ের বিপরীতে মনোভাব পোষণ করা, তার পর বিয়ে করা থেকে যাত্রাপথ বিস্তৃত হয়েছিল তাঁর; সে সময় প্রত্যাশিত মাতৃত্বের চাপকে প্রত্যাখ্যান করা এবং এখন তিনের ঘরের বয়সে ফের সেটাকে গ্রহণ করা নিয়ে কালকি বলেন, জীবন এবং মানসিকতার বিকাশ কতকটা কুঁড়ির মতোই ফুল হয়ে ফোটে।

তাঁর কথায়, “আমি জানি না কখন আমার ধারণাগুলোর পরিবর্তন হতে শুরু করে, তবে আমি জানতাম যে অনুরাগ কাশ্যপের সঙ্গে আমার বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে যাওয়ার পরে আমি অনেকগুলো ধারণা পুনর্বিবেচনা করতে পেরেছি”।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.