ওয়েব ডেস্ক: আগেই বলেছিলেন, তিনি কঙ্গনার বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করতে চলেছেন। এবার আরও একধাপ এগিয়ে অভিনেতা আদিত্য পাঞ্চোলি বললেন, কঙ্গনা যে সব মঞ্চ থেকে আদিত্যর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন, সেই সব জায়গা থেকেই আদিত্যর কাছে নিঃশর্ত ভাবে ক্ষমা চাইতে হবে। আর তা যদি তিনি না করেন, তাহলে কঙ্গনাকে জেলে পাঠাবেন তিনি। মঙ্গলবারের মধ্যে কঙ্গনাকে আইনি নোটিশ পাঠাবেন বলেও জানিয়েছেন আদিত্য পাঞ্চোলি।

পাশাপাশি আদিত্য এও বলেছেন, কঙ্গনা যদি প্রমাণ করতে পারেন, তাঁর সব অভিযোগ সত্যি, তাহলে তিনি নিজে জেলে যাবেন।

আরও পড়ুন: বোকার মতো কথা বলছেন কঙ্গনা, বললেন আদিত্য পাঞ্চোলির স্ত্রী জারিনা

কিছুদিন আগে রজত শর্মার ‘আপ কি আদালত’ অনুষ্ঠানে গিয়ে কঙ্গনা রানাউত বলেছিলেন, তিনি যখন বলিউডে আসেন, সে সময় তাঁকে সাহায্য করার নামে দিনের পর দিন ধর্ষণ করেছিলেন আদিত্য পাঞ্চোলি। এমনকি তাঁকে ঘরবন্দি করেও রেখেছিলেন। শেষ আর থাকতে না পেরে, তিনি আদিত্যর স্ত্রী জারিনা ওয়াহাবের কাছে সব খুলে বলেন। কিন্তু জারিনা তাঁকে সাহায্য করেননি। বরং বলেন, আদিত্য বাড়িতে আসে না, এতে তাঁরা শান্তিতে আছেন।

ওই অনুষ্ঠানে আদিত্য ছাড়াও, কঙ্গনা তাঁর প্রাক্তন প্রেমিক হৃতিক রোশন সম্পর্কেও নানা কথা বলেন। হৃতিক কঙ্গনার বক্তব্য নিয়ে মুখ না খুললেও আদিত্য চুপ করে থাকেননি। এমনকি আদিত্যর স্ত্রী জারিনা ওয়াহাবও বলেন, কঙ্গনা মিথ্যা কথা বলছেন। এরপর মুখ খোলেন আদিত্যর ছেলে সুরজ পাঞ্চোলি। সুরজ বলেন, সেই সময়টার কথা তাঁর মনে আছে। তখন তাঁর ১৪-১৫ বছর বয়স। সেই সময়টা তাঁদের পরিবারের পক্ষে মোটেও ভালো ছিল না।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন