ওয়েবডেস্ক: এ বার বেশ স্পষ্ট করেই বোঝা যাচ্ছে ব্যাপারটা! টের পাওয়া যাচ্ছে দিব্যি- কেন ছেলেকে এত প্রচারের আলোয় রাখছেন সইফিনা!

কিছু দিন আগেই যদিও এক সাক্ষাৎকারে ঘটা করে বলেছিলেন করিনা কাপুর খান, তিনি না কি তৈমুরের এই রোজ সংবাদমাধ্যমে ছবি প্রকাশ হওয়া নিয়ে খুবই উদ্বিগ্ন! তিনি না কি একদম-ই চান না যে প্রচারের আলোয় বড়ো হয়ে শেষে বিগড়ে যাক সাধের ছেলে!

taimur ali khan

তা হলে এই ম্যাগাজিনের কভার জুড়ে তৈমুর আলি খানের ছবির মানেটা কী? এ তো আর ফটোশপ করা নয়। পাপারাজ্জিদেরও হাত-যশ নেই এর পিছনে। বোঝাই যাচ্ছে, ছেলেকে বিনোদন জগতে নিয়ে আসার এ প্রথম উদ্যোগ! সেই জন্যই করিনার সঙ্গে ছবিটা তোলা হয়নি! তোলা হয়েছে আলাদা করে, স্রেফ তৈমুরকেই কেন্দ্রে রেখে!

সেই জন্যই এ বার বলিউডের অন্দরমহলের খবর বলছে, আর বেশি দেরি নেই, খুব তাড়াতাড়িই ছবির পর্দাতেও মুখ দেখাবে করিনা কাপুর খান আর সইফ আলি খানের এই ছেলে! বলিউড এটাও দাবি করছে- ইতিমধ্যেই না কি করিনা রসিকতার ছলে সেই ইঙ্গিতও দিয়েছেন। এবং যাতে শুটিং ব্যাপারটার সঙ্গে ছেলে এখন থেকে অভ্যস্ত হয়ে পড়ে, তাই তাকে সঙ্গে করে নিয়েও যাচ্ছেন স্টুডিওয়।

সম্প্রতি-ই যেমন দেখা গেল তার ঝলক! ভাইরাল হল সেই ভিডিও নেটদুনিয়ায়। যেখানে দেখা গেল, করিনা ছেলেকে নিয়ে পৌঁছেছেন স্টুডিওয়, গাড়ি থেকে নামলেনও খুদেকে কোলে করে। তার পর পরিচালক পুনিত মালহোত্রা, যিনি ‘স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার ২’ ছবিটা পরিচালনা করছেন তাঁকে বললেন, “আজ কেন ও স্টুডিওয় এসেছে জানো? ও তোমার ৫ নম্বর স্টুডেন্ট”!

মানে খুবই সাফ! করিনা চাইছেন ‘স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার ৫’-এ কাজ করুক তৈমুর! বিশ্বাস না হলে নিজেই শুনে এবং দেখে নিন ভিডিওয়।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here