ওয়েবডেস্ক: বৃহস্পতিবার, ৫ এপ্রিল, তাঁদের কারও জন্যই খুব একটা স্বস্তির ছিল না। সলমন খান, সইফ আলি খান, টাবু, নীলম কোঠারি- সবাই একটা দুশ্চিন্তা মাথায় নিয়ে আর উত্তেজনা বুকে পুষে রেখে হাজিরা দিয়েছিলেন জোধপুর আদালতে।

salman khan

এর পরের ঘটনা এখন আর কারও জানতে বাকি নেই। সইফ, টাবু, নীলম- জোধপুরের কঙ্কনি গ্রামে সলমনের সঙ্গে বিরল প্রজাতির কৃষ্ণসার হরিণ শিকারে যোগ দিয়েছিলেন যাঁরা, সবাই আদালতের রায়ে বেকসুর খালাস পেয়ে গিয়েছেন। স্বস্তির নিশ্বাস ফেলে ফিরে এসেছেন যে যার বাড়িতে। গরাদের পিছনে শুধু রয়ে গিয়েছেন সলমন একা।

তবে, বাড়িতে ফিরে সবাই নির্দোষ সাব্যস্ত হওয়ার আনন্দ পালন করেছিলেন কি না, এটা জানা না থাকলেও পতৌদি পরিবারে আনন্দের বান ডেকেছিল। পাপারাজ্জিদের তোলা ছবি এবং বলিউডের অন্দরমহলের গোপন খবর-ই ফাঁস করে দিয়েছে সে কথা। জানা গিয়েছে, সলমনকে সৌভাগ্যের জন্য শুভকামনা জানিয়ে রাজস্থান থেকে মুম্বই ফিরে আসার পরে করিনা কাপুর খান এবং সইফ আলি খানের বাড়িতে একটা ঘরোয়া পার্টির আয়োজন করা হয়েছিল। আর সেটা হলে করিনার দিদি করিশ্মা কাপুর যে সেখানে হাজিরা দেবেন-ই, সেটাও জানা কথা!

kareena kapoor khan and saif ali khan

খবর বলছে, একটু রাতের দিকে করিশ্মা বেশ সাজগোজ করেই হবু স্বামী সন্দীপ তোশনিওয়ালের সঙ্গে পৌঁছে যান করিনা আর সইফের বাড়িতে। অন্তরঙ্গ আত্মীয়রা একযোগে পালন করেন সইফের মুক্তি।

অনেকে অবশ্য বলতেই পারেন, সকাল থেকেই নানা খবর, বিশেষ করে গাড়ির কাচ তুলে দেওয়া নিয়ে গাড়িচালকের সঙ্গে সইফের যে দুর্ব্যবহারের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে, তার জেরে, সবাই ঠিকঠাক আছে কি না, তা দেখতেই বোনের বাড়িতে এসেছিলেন করিশ্মা।

karishma kapoor

নিন্দুকরা অবশ্য প্রতিযুক্তি হিসাবে খুঁটিয়ে ছবিতে করিশ্মার অভিব্যক্তি নজর করতে বলছেন। ব্যাপারটা দুশ্চিন্তা সংক্রান্ত হলে পাপারাজ্জিদের দিকে এ ভাবে হাত নেড়ে নেড়ে কি আর বোনের বাড়িতে ঢুকতেন করিশ্মা?

মনে তো হয় না!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here