ওয়েবডেস্ক: ২০০১ সালে স্টার প্লাসের পর্দা থেকে বিদায় নেয় জনপ্রিয় এই হিন্দি ধারাবাহিক- ‘কসৌটি জিন্দগি কে’! সেই সময় যে কতটা ভেঙে পড়েছিলেন ধারাবাহিকটির প্রযোজক একতা কাপুর, সাম্প্রতিক এক ইনস্টাগ্রাম পোস্টে প্রমাণ মিলল তার!

জোর কানাঘুষো চলেছিল সেই সময়ে- টাকাকড়ির সমস্যার জন্য একরকম না কি বাধ্য হয়েই ধারাবাহিকটি টিভির চ্যানেল থেকে তুলে নিলেন একতা। না হলে আরও পর্বের পর পর্ব দেখিয়ে যাওয়া এমন কিছু মুশকিলের ছিল না। তা ছাড়া সামান্য হলেও পড়ে এসেছিল ধারাবাহিকটির টিআরপি। ফলে সব কিছু মিলিয়েই যখন চ্যানেল কর্তৃপক্ষ চাপ দেন, ‘কসৌটি জিন্দগি কে’ বন্ধ করে দিতে হয় একতাকে।

kasautii zindagii kay

এ বার কিন্তু ইতিহাস ঘুরে গেল পুরো ১৮০ ডিগ্রি। জানা গিয়েছে, হালফিলে স্টার প্লাস চ্যানেল-ই না কি প্রায় উঠে যাওয়ার মুখে এসে দাঁড়িয়েছে। দর্শকরা নেতিবাচক রেটিংস দিতে শুরু করেছেন চ্যানেলে দেখানো অনুষ্ঠানগুলোকে। নানা রকম চেষ্টা করেও কিছুতেই আর আগের মতো দর্শক টানতে পারছে না স্টার প্লাস। যার জেরে ‘খিচড়ি’ ধারাবাহিকটি ফের দেখানো শুরু হয়েছে চ্যানেলের পর্দায়। কিন্তু তাতেও হালে পানি পাওয়া যায়নি। তাই বাধ্য হয়েই একরকম স্টার প্লাস কর্তৃপক্ষ দ্বারস্থ হয়েছেন একতার! যদি ফের তিনি তাঁর জনপ্রিয়তার সোনার কাঠি ছুঁইয়ে মরণঘুম থেকে জাগিয়ে তুলতে পারেন চ্যানেলকে।

ekta kapoor

এবং প্রতিশোধ নেওয়ার এই সুযোগটা ছাড়তে চাননি একতা। ফের ‘কসৌটি জিন্দগি কে’-ই একমাত্র সম্প্রসারিত হতে পারে- চ্যানেলের কাছে এই শর্ত রেখেছেন তিনি। স্টার প্লাস-ও বিপদ বুঝে তাতেই রাজি হতে বাধ্য হয়েছে। এই জয়ের পরিপ্রেক্ষিতেই ইনস্টাগ্রামে ধারাবাহিকটির সঙ্গে জড়িত তাঁর আবেগের কথা সবার সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন একতা।

“কিন্তু আমি তোমায় ভালোবাসি, আমি তোমায় ভালোবাসি এবং, আমি তোমায় না ভালো বেসে থাকতে পারি না… ভেঙে যাওয়া হৃদয় নিয়ে ২০০১ সালে লিখেছিলাম আমি… আর ১৭ বছর পরে ফের আমি ব্যক্তিগত যন্ত্রণায় ডুবিয়ে আর পুরনো আমির অভিজ্ঞতার বুননে রিবুট করছি… ফিরিয়ে নিয়ে আসছি আমার সব চেয়ে সাফল্যমণ্ডিত প্রেমের গাথা যা একটানা ৯ বছর চলেছিল… আবারও আমি নিজের ভাঙা হৃদয়ের টুকরোগুলোকে বদলে দিচ্ছি শিল্পে”, সেই পোস্টে ঝড়ে পড়েছে একতার ব্যথা!

আর পোস্টের শেষ বাক্যটি থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছে তুমুল জল্পনা- তবে কি ধারাবাহিকটি যেখানে শেষ হয়েছিল, সেখান থেকেই শুরু হচ্ছে নতুন কাহিনি? প্রেরণা আর অনুরাগের পরবর্তী প্রজন্মের গল্প এ বার বলতে চলেছে ‘কসৌটি জিন্দগি কে’?

একতা তো এ ব্যাপারে কিছু জানাননি! দেখা যাক!

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন