ওয়েবডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ৪৯ জন বিদ্বজ্জনের চিঠি দেওয়ার পর শুক্রবার একটি টুইট-বোমা ফাটিয়েছেন প্রবাদপ্রতিম সংগীতশিল্পী আশা ভোঁসলে। যে টুইটে তিনি প্রশ্ন করেছেন, “দম মারো দম…বলো সুবহ শাম…হরে কৃষ্ণ হরে নাম, এই চিরনবীন গানটা গাইতে পারব তো?”

এই প্রশ্নের মানে কিছুটা অস্পষ্ট হলেও, অনেকেই মনে করছেন, এমন সময়ে তিনি এই টুইট করেছেন তাতে স্পষ্ট, গায়িকা বুদ্ধিজীবীদের উদ্দেশ করেই এই টুইট-বাণ ছুড়েছেন। নেটিজেনরা ঝাঁপিয়ে পড়েছেন আশাজির এই টুইটের পক্ষে-বিপক্ষে মত দিতে।

আরও পড়ুন ‘জয় শ্রীরাম’ বিতর্কে মোদীকে পত্রাঘাত ৪৯ জন বিদ্বজ্জনের

টুইটের মানে স্পষ্ট করার জন্য আশা ভোঁসলের কাছে গিয়েছিল রিপাবলিক টিভি। আশাজি হেসে বলেছেন, ‘‘সাম্প্রতিক ঘটনাবলির প্রেক্ষিতে এটা একটা মজাদার টুইট। এর আলাদা করে কোনো মানে নেই। আপনারা সাংবাদিকরা এর থেকে মানে বার করার চেষ্টা করতে পারেন। কিন্তু আমি এ নিয়ে কিছু বলব না।’’

লোকসভা ভোটের সময় থেকে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দেওয়া নিয়ে বির্তক শুরু হয়েছে। বুদ্ধিজীবীদের একাংশের দাবি রামের নাম ‘রণহুঙ্কার’ হয়ে গিয়েছে। তাঁর নামে মানুষ খুন করা হচ্ছে। এই ক্রমবর্ধমান অসহিষ্ণুতা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন ৪৯ জন বুদ্ধিজীবী। এঁদের মধ্যে বাংলার অপর্ণা সেন, কৌশিক সেন, অনুপম রায়রা রয়েছেন। এই চিঠির বিরুদ্ধে সমালোচনাও চলছে। তার মধ্যে আশা ভোঁসলের এই টুইট বিতর্কে নতুন মাত্রা দিয়েছে।

১৯৭১ সালে মুক্তি পায় দেব আনন্দ, জিনাত আমন ও মুমতাজ অভিনীত ‘হরে রাম হরে কৃষ্ণ’ ছবিটি। এই ছবির চিত্রনাট্য এবং পরিচালনা করেন খোদ দেব আনন্দ। তখনকার হিপ্পি সংস্কৃতির সমালোচনা করেই এই ‘দম মারো দম..’ গানটি তৈরি করা হয়েছিল। এই গানের দু’টি ভাগ রয়েছে প্রথম ভাগে ‘দম মারো দম…’ গেয়েছেন আশা ভোঁসলে। শেষ অংশে রয়েছে কিশোর কুমারের গলায় হিপ্পি সংস্কৃতির সমালোচনা করে গান ‘দেখো ও দিওয়ানো তুম ইয়ে কাম না করো, রাম কা নাম বদনাম না করো।’’ আর ডি বর্মনের সুরে অনবদ্য এই গানটি সে সময় বেশ জনপ্রিয় হয়। সেই জনপ্রিয়তা আজও থেকে গিয়েছে।

কিশোর কুমারের গাওয়া অংশটিতে যে কথা রয়েছে বুদ্ধিজীবীদের অনেকেই বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে সেই কথাই বলতে চেয়েছন। রামের জীবন ভালো করে না জেনে, গীতার বাণী ভালো করে না পড়ে যা চলছে সেটা ‘লুম্পেন্সি’-র নামান্তর।

আশাজি প্রশ্ন করেছেন তিনি ‘দম মারে দম…’ গাইতে পারবেন কিনা। কিশোর কুমার থাকলে হয়তো প্রশ্ন করতেন তিনি গানের শেষ অংশটা গাইতে পারবেন তো? বলছেন অনেকে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন