ওয়েবডেস্ক: বলিউডে বজ্রপাত। এছাড়া আর কীই বা বলা যায় এই ঘটনাকে। মাত্র ৫৪ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল কিংবদন্তি অভিনেত্রী শ্রীদেবীর। দুবাইতে একটি পারিবারিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়েছিলেন তিনি। সঙ্গে ছিলেন স্বামী বনি কাপুর ও ছোটো মেয়ে খুশি। তাঁর বড়ো মেয়ে জাহ্নবী শুটিং থাকায় পরিবারের সঙ্গে যেতে পারেননি। নিজের দুই মেয়ে ছাড়াও বনির আগের পক্ষের ছেলেমেয়ে অর্জুন কাপুর ও অনশুলার সৎ মা শ্রীদেবী।

১৯৬৯ সালে তামিল ছবি থুনাভিয়ানে শিশুশিল্পী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন শ্রীদেবী। তারপর বিভিন্ন তামিল, মালয়ালম, তেলেগু ও কন্নর ছবিতে অভিনয় করেছেন। ১৯৭৮ সালে তিনি বলিউডে পা রাখেন ‘ষোলয়া সাওন’ ছবির মধ্যে দিয়ে। তবে শ্রীদেবী নায়িকা হিসেবে পরিচিতি পান ১৯৮৩ সালে জিতেন্দ্রর বিপরীতে হিম্মতওয়ালা ছবিতে। তারপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। মাওয়ালি, তোহফা, মিস্টার ইন্ডিয়া, চাঁদনি- তাঁকে যেমন বক্স অফিসের শীর্ষে রেখেছে। তেমনই সদমা, চালবাজ, লমহে, গুমরাহ-র মতো ছবিতে তিনি আদায় করে নিয়েছেন সমালোচকদের প্রশংসা।

হোম প্রোডাকশনে জুদাই ছবিতে অভিনয়ের পর তিনি পপনেরো বছর কোনো ছবিতে অভিনয় করেননি। নতুন করে বলিউডে পা দেন ২০১২ সালে গৌরি শিন্ডের ইংলিশ ভিংলিশ ছবিতে। মধ্যবিত্ত গৃহবধূর চরিত্রে ক্ষীদেবীর অভিনয় যথারীতি মুগ্ধ করে দর্শকদের। গত বছর নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি ও অক্ষয় খন্নার সঙ্গে অভিনয় করেন রিভেঞ্জ ড্রামা ‘মম’-এ।  শাহরুখ খানের পরবর্তী ছবি ‘জিরো’তে তাঁকে একটি ছোটো চরিত্রে দেখা যাবে। জিরো রিলিজ করবে আগামী ডিসেম্বরে।

স্বাভাবিক ভাবেই শ্রীদেবীর মৃত্যুতে শোকবার্তার ঢল মেনেছে বলিউড জুড়ে। আন্ধেরিতে তাঁর বাড়ির সামনে ভিড় জমিয়েছেন ভক্তরা।

আরও পড়ুন: শ্রীদেবীর প্রতি রাজীব গান্ধীর মসকরা হাসিতে ভাসিয়ে ছিল গোটা পার্টি

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here