ওয়েবডেস্ক: “সত্যি বলতে কী, আমিও যে তৈমুরকে ব্যবহার করার কথা ভাবি না, তা নয়! কিন্তু ওর মা বলে- এমন ছোটলোকের মতো ভাবনা কেন তোমার? তুমি নিজের ছেলেকে বিক্রি করতে চাইছ? আমি তখন বলি- অসুবিধেটা কী, চলো না ওকে বেচে দিই! কেউ যদি বাচ্চাদের ন্যাপি বা এ রকম কিছুর বিজ্ঞাপন বানাতে চায়, আর একটা মোটা টাকা দিতে চায়, তৈমুরকে বেচে দিলেই তো হয়! ওই টাকার কিছুটা দিয়ে ওরই পড়াশোনার খরচ চালাব, বাকিটা রাখব নিজের হাতখরচ আর অন্য খরচের জন্যে”, সংবাদমাধ্যমে একদা এ কথা জানিয়েছিলেন খোদ সইফ আলি খান!

আরও পড়ুন: জীবনের প্রথম স্পোর্টসের অভিজ্ঞতা তৈমুরের কেমন হল? দেখুন ছবিতে

ফলে, যখন খবর এল, মধুর ভাণ্ডারকর তৈমুর আলি খানকে নিয়ে ছবি করতে চলেছেন, স্বাভাবিক ভাবেই নড়েচড়ে বসল বলিউড! তা হলে সইফ সত্যি সত্যিই অনুমতি দিয়ে দিয়েছেন পরিচালককে? যা তাঁকে বেশ বড়ো রকমের একটা টাকার অঙ্কের মুখও দেখিয়েছে? এখন এটা তো সবারই জানা যে মধুরের বেশির ভাগ ছবিই হয় ডকুড্রামা ঘরানার, অর্থাৎ সত্য ঘটনা অবলম্বনে ছবি, যার মধ্যে বাস্তব আর কল্পনা হাত ধরে পথ হাঁটে!

 

View this post on Instagram

 

#Travallife #Airportlife #instapic #instatravelling

A post shared by Madhur Bhandarkar (@imbhandarkar) on

যাই হোক, খবর আপাতত স্রেফ এটুকুই বলছে যে পরিচালক ‘তৈমুর’ নামের একটা ছবি এর মধ্যেই রেজিস্ট্রি করিয়ে ফেলেছেন! এখন সেটা পতৌদিদের ছোটে নবাবকে নিয়েই কি না, সে বিষয়ে মুখ খুলছেন না পরিচালক, জিইয়ে রাখতে চাইছেন উত্তেজনা! ও দিকে, ছেলেকে নিয়ে সইফ আর করিনা কাপুর খান তো বছরশেষের ছুটি কাটাতে পাড়ি দিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকায়, ফলে তাঁদের কাছ থেকেও কিছু জানা যাচ্ছে না! দেখা যাক, আশা করা যায়, বিষয়টা নিয়ে তাড়াতাড়িই মুখ খুলবেন কেউ না কেউ- হয় মধুর, নয় তো পতৌদি পরিবারের কেউ!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here