ওয়েবডেস্ক: শুধু টলিউড কেন, খবরে তো সারা দেশ জুড়েই হুলস্থুল! কেন না, যে জায়গায় শেষ হয়ে গিয়েছিল সত্যজিৎ রায়ের অপুর সংসার, সেখান থেকেই তারাদাস বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাজল অবলম্বনে অভিযাত্রিক- দ্য ওয়ান্ডারলাস্ট অব অপু ছবি করতে চলেছেন পরিচালক শুভ্রজিৎ মিত্র, যে ছবির সহ-প্রযোজক আবার মধুর ভান্ডারকর! এবং খবর প্রকাশিত হতেই জারি হয়েছে অনলাইন পিটিশন- এই ছবির প্রস্তুতি বন্ধ হোক! পরিচালকের ভাবনা নিয়ে এ জেহাদ কেন, তা জানার জন্য নীচের লিঙ্কে ক্লিক করতে পারেন!

আরও পড়ুন: ৬০ বছর পরে ফের পর্দায় ফিরছে অপু, সঙ্গে ছেলে কাজল, ছবি যদিও সাদা-কালোই!

দেখা গেল, শুধু পিটিশনারই নয়, প্রীতীশ নন্দীর মতো বর্ষীয়ান পরিচালকও টুইট করেছেন এই উদ্যোগের সমালোচনা করে! তার পরে তাঁর উদ্দেশেও বর্ষিত হয়েছে সমালোচনা, অনেকে ব্যাপারটাকে দেখছেন বলিউডের লবিবাজি হিসেবেই! কিন্তু এ নিয়ে কথা বলতে গিয়ে মধুর নিজে যা করলেন, তার থেকেই স্পষ্ট যে এ ছবি তৈরি না হলেই ভালো হয়!

কেন না, টুইট বিবৃতিতে বার বার অপুর নামের ইংরেজি বানানে বিকৃতি ঘটিয়েছেন তিনি, যা মোটেই মধুর নয়! অন্তত বাঙালির কাছে তো নয়ই! মধুর যা বানান লিখেছেন, তার উচ্চারণ দাঁড়ায় আপ্পু! বাঙালির আবেগে হাত দেওয়ার আগে কি বাঙালির ভাষাটাও একটু শেখা দরকার ছিল না? তা ছাড়া, ইংরেজিতে তো বানানটা গোটা গোটা করে ছবির নামেই দেওয়া থাকে, তার পরেও এমন প্রমাদ কেন- সদুত্তর নেই!

ও দিকে যা দেখা যাচ্ছে, ছবির গল্প নিয়েও ধন্দে রয়েছেন মধুর! তাঁর টুইট বলছে, সবাই আশ্বস্ত হোক, কেন না এ ছবি রিমেক নয়! আশ্চর্য, রিমেক হবেই বা কেন! পরিচালকের যা দাবি, তার সঙ্গে তো মধুরের দাবি মিলছে না! তা হলে কি তাঁরা প্রথমে রিমেকেরই পরিকল্পনা করেছিলেন? না কি বৃদ্ধ অপুর স্মৃতিচারণে পুরনো গল্পই পরিবেশন করতে চান?

কে জানে! কিন্তু বলুন দেখি- এ ছবি তৈরি হোক, আপনিও কি চান?

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here