ওয়েবডেস্ক: ঠিক সোমবারের ঘটনা। ১১ ফেব্রুয়ারি, মিমি চক্রবর্তীর জন্মদিন। একটা সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট মিলল নুসরত জাহানের তরফে। কী লেখা ছিল সেখানে?

“মাঝে মধ্যে ও খুবই বিটার! অন্য সময়ে ও বেটার! সোনার হৃদয়ওয়ালা এক মেয়ে আসলে! জীবনে আরও উন্নতি করো! আরও অনেক আলোচনার কেন্দ্রে থাকো! আই লাভ ইউ মাই গার্লফ্রেন্ড! হ্যাপি বার্থডে বোনুয়া”- এই লিখেই ফিরিস্তি শেষ করেছিলেন নুসরত!

 

View this post on Instagram

 

Gudmorning.. #gratitudetowardslife #positivethinking #makeitblissful pic courtesy @sandip3432

A post shared by Nusrat (@nusratchirps) on

আরও পড়ুন: প্রসঙ্গ ব্র্যান্ড ভ্যালু, নুসরত জাহানকে গোল মিমি চক্রবর্তীর, শীতল যুদ্ধ ইনস্টাগ্রামেও!

আর তখন থেকেই ভুরু কুঁচকে গিয়েছিল টলিউডের অনেকের। ‘বেটার’ না হয় হল এত রকম, কিন্তু ‘বিটার’ বলছেন কেন নুসরত মিমিকে? তা ছাড়া, অনেকে দাবি তুলেছিলেন- জীবনে আরও উন্নতি করো- একেও ঠিক শুভেচ্ছা হিসেবে ধরা উচিত হবে না!

এ বার যখন জানা গেল যে শগুফতা রফিক তাঁর প্রথম ছবিতে নিতে চেয়েছিলেন নুসরতকে যশ দাশগুপ্তর বিপরীতে, কিন্তু পরে জায়গা করে দিলেন মিমিকে, তখন অনেক জট কাটল বলেই দাবি তুলল টলিউড! আসলে ছবিটার প্রযোজনা সংস্থা এসভিএফ-এর কর্ণধারের সঙ্গে নুসরতের ভালো সম্পর্ক অনেক দিনই শেষ হয়েছে। ফলে, এখন আর কেউ কারও ধার ধারছেন না!

 

View this post on Instagram

 

🕊🕊🕊

A post shared by Mimi (@mimichakraborty) on

এ বার বোঝা গেল, ‘বিটার’ আর ‘বেটার’-এর সমীকরণটা?

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here