mithun
মিঠুন চক্রবর্তী

ওয়েবডেস্ক : কিছুদিন আগে শোনা গিয়েছিল অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী অসুস্থ। তাই বেশ কিছুদিন লাইম লাইটের আড়ালে ছিলেন তিনি। তবে আবার স্পট লাইটে ফিরতে বেশি দেরি নেই। ফের বাংলা ছবিতে ফিরতে চলেছেন অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী। এই ফেরা হবে একটু অন্য রকম। মানস মুকুল পাল পরিচালিত দীনেশ গুপ্তের বায়োপিকে অভিনয় করতে চলেছেন তিনি।

মানস মুম্বই গিয়ে মিঠুনকে চিত্রনাট্য পড়ে শুনিয়েছিলেন। চিত্রনাট্য শুনে এক কথায় রাজি হয়ে যান তিনি।

উল্লেখ্য, ‘সহজপাঠের গপ্পো’ দিয়ে টলিউডে পা রেখেছিলেন মানস মুকুল পাল। সেই ছবির অভিনেতা রাষ্ট্রপতি পুরস্কারও পেয়েছেন। এ বার দীনেশ গুপ্তর বায়োপিক নিয়ে কাজ করতে চলেছেন তিনি। বহুদিন ধরেই বিনয়-বাদল-দীনেশকে নিয়ে কাজ করার কথা ভাবছিলেন পরিচালক মানস। এ বার সেই স্বপ্নই বাস্তবায়িত হতে চলেছে।

আরও পড়ুন – শাহরুখ-তনয়া সুহানার এমন নাচ কি আগে কখনও দেখেছেন?

প্রসঙ্গত এই ছবি নিয়ে কিছুটা জলঘোলাও হয়েছিল। খানিকটা এক ফুল তিন মালির মতো ব্যাপার। ছবির বিষয় একটা। কিন্তু তার পরিচালক তিনজন। মানস মুকুল পাল, অঞ্জন দত্ত, অনিকেত চট্টোপাধ্যায় এই তিন জনই বিনয়-বাদল-দীনেশকে নিয়ে ছবি করতে চান।

এই বিষয়ে মানস মুকুল জানান, এই কাজটার জন্য তিনি বহু ছবির অফার ছেড়ে দিয়েছেন। তাই এই ছবিটা থেকে পিছিয়ে আসার কোনো জায়গা নেই। শুধু তাই নয়। তিনি জানান, শুধু দীনেশকে নিয়ে একটিই নয়, স্বাধীনতা সংগ্রামীদের নিয়ে একটি সিরিজ তৈরি করবেন। তার মধ্যে একটিতে দেবকে নেবেন বলেও ঠিক করে ফেলেছেন। এমনকি দেবের সঙ্গে এই বিষয়ে কথাও হয়ে গিয়েছে।

জানিয়ে রাখা ভালো, ২০০৯ সালে ‘লাক’ ছবির শুটিং-এর সময় পিঠে আঘাত পেয়েছিলেন মিঠুন চক্রবর্তী। ২০১৬ সালে হাসপাতালেও ভর্তি থাকতে হয়েছিল তাঁকে। কিন্তু তাতেও পুরোপুরি সুস্থ হননি। ২০১৮ সালের ডিসেম্বর মাসে আবার শারীরিক অবনতি হয়। তার পরে লস অ্যাঞ্জেলসে চিকিৎসা করান। তিনি আপাতত সুস্থ। সেই মতোই শুটিং শুরুর কথা ভাবছেন অভিনেতা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here