ওয়েবডেস্ক: না না!

সত্যি বলতে কী, সেই ২০০৮ সাল থেকে এটাই তো বলে চলেছেন তিনি তনুশ্রী দত্তর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে। সেই সময়ে নানা পটেকরের বিরুদ্ধে গিয়ে মহারাষ্ট্র নব নির্মাণ সেনার হুমকির মুখে পড়েছিলেন নায়িকা, গাড়ি ভাঙচুর করে স্টুডিও থেকে বেরনোর সময় তাঁর রাস্তা আটকে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তনুশ্রী সেই সময়ে ভয় পেয়ে চুপ করে থাকলেও অবশেষে মুখ খুলেছেন ‘মি টু’ আন্দোলনের শরিক হয়ে।

কিন্তু নানা তাঁর বিবৃতি বদলাননি! সেই সময়ে জানিয়েছিলেন- “ও আমার মেয়ের বয়সী! এমন কেন করতে যাব? জানি না এ সব ভিত্তিহীন অভিযোগ কেন আনা হচ্ছে আমার নামে! কই, ইন্ডাস্ট্রির কেউ তো বিষয়টার সাক্ষ্য দিচ্ছে না!”

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Nana Patekar (@nana_patekar_) on

আরও পড়ুন: পিরিয়ডের জন্য ‘এত কিছু’? তনুশ্রীর নাম নিয়ে গোপন ভিডিওয় এ কী দেখালেন প্রযোজক?

তার পরে যখন এই বছরে এসে বলিউড তোলপাড় হল, তখন জানিয়েছিলেন তিনি- “আরে, শ্লীলতাহানি আবার কী! ২০০ জন লোক ওখানে বসে ছিল, তারা সব দেখেছে! আমায় ৭ কী ৮ অক্টোবর রাজস্থান থেকে শুটিং সেরে মুম্বই ফিরতে দিন! তার পর ক্যামেরার সামনে বসব! যা জানার, আমায় জিজ্ঞাসা করবেন! সব প্রশ্নের উত্তর দেব, কিছু লুকোব না! কী মনে হয় আপনাদের- মে ইতকা ঘনেরদা মানুস আহে?” জয়সলমের থেকে ‘হাউজফুল ৪’ ছবির শুটিং করতে করতে তো মরাঠিতে এ ভাবে তিনি ঘৃণ্য মানুষ না কি- প্রশ্নটা আমাদের ছুঁড়ে দিলেন!

 

View this post on Instagram

 

More new looks coming soon!!

A post shared by Tanushree Dutta (@iamtanushreeduttaofficial) on

ফলে জোধপুর বিমানবন্দরে তাঁকে হাতের কাছে পেয়ে যখন সাংবাদিকরা ফের তনুশ্রীকে নিয়ে প্রশ্ন তুললেন, হাসি মুখে জানালেন নানা- ‘যেটা মিথ্যে, সেটা মিথ্যেই!’ যখন জানতে চাওয়া হল, সাংবাদিক বৈঠক তিনি করবেন কি না, তখনও বেশ শান্ত ভাবেই জানালেন তিনি- ‘হ্যাঁ, ওটা হচ্ছেই!’ দেখা যাক, সেই বৈঠকে কী বলেন তিনি পরের ধাপে!

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন