ওয়েবডেস্ক: দুর্বল বরাবরই সবলের হেনস্তার শিকার! নারীসুরক্ষার প্রশ্নে সম্প্রতি এই চিরন্তন সত্যটি নতুন করে প্রতিষ্ঠা করলেন মুনমুন সেন! সাফ জানালেন- সমাজে সেই সব নারীরাই মূলত নির্যাতন এবং যৌন হেনস্তার শিকার, যাঁরা সুরক্ষার বলয়ে অবস্থান করছেন না। যদিও মুনমুনের কথায় আসার আগে একবার ডোনা গঙ্গোপাধ্যায়ের মতটাও না তুললেই নয়। কেন না, শহরের এক আলোচনাসভাতেই শোনা গিয়েছে এ হেন কথোপকথন!

আরও পড়ুন: স্টেজে শ্রাবন্তী, উঠে আসতে চাইছে এক দল ছেলে, পিছু হটলেন নায়িকা, বাকিটা দেখুন ভিডিওয়

 

View this post on Instagram

 

In Lisbon….

A post shared by Dona Ganguly (@dona_ganguly_39) on

ডোনা খুব স্পষ্ট ভাবে নারীদের সুরক্ষার দায়টি তুলে দিয়েছেন তাঁদেরই হাতে! “রাতারাতি সমাজ বদলে যাবে, এমনটা তো আশা করা অন্যায়! তাই আমি মেয়েদেরই গভীর রাতে পথে বেরোতে বারণ করব। আমি আর সৌরভ অনেক রাতে ছবি দেখে বাড়ি ফিরি, কিন্তু সেখানে সুরক্ষা সংক্রান্ত কোনো ভাবনায় পড়তে হয় না। মেয়েদের বলব, যদি একান্তই রাতে পথে থাকতে হয়, তা হলে বাড়ি ফেরার সময়ে পাবলিক ট্রান্সপোর্ট ব্যবহার না করাই ভালো”, দাবি তাঁর!

ঠিক এই জায়গায় এসে বিস্ফোরক হয়েছে মুনমুনের বিবৃতি! “রাতে পথে বেরিয়ে ধর্ষিতা হচ্ছেন মেয়েরা, এ রকম ঘটনা তো আর আজকে নতুন ঘটছে না। বরাবরই ঘটছে। তাই সমস্যার কারণটা বুঝতে হবে। আমায় গভীর রাতে পথে কেউ একা পেলেও ধর্ষণ করবে না। কিন্তু সাধারণ মেয়েদের সুরক্ষা প্রশ্নাতীত নয়। কেন না, তাঁরা সব দিক থেকে সুরক্ষিত নন। তাই আমার মনে হয়, দুর্বৃত্তদের কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করলে কিছুটা হলেও লাভ হতে পারে”, জানাচ্ছেন তিনি!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here