ওয়েবডেস্ক: বলাই বাহুল্য, খবরটা মিশ্র প্রতিক্রিয়ার জন্ম দেবে দর্শকের মনে। অনেকেই ব্যোমকেশ, অজিত, সত্যবতী বাংলা ছবির রুপোলি পর্দায় আর ফিরে আসবে না বলে মন খারাপ করবেন! তেমনই ছবি দেখে সাহিত্যের যে সব ভক্তর ‘ইশ, কী খারাপ বানিয়েছে’ বলে মন খারাপ হত এত দিন, তাঁরা আনন্দিত হবেন!

সে না হয় হল! কিন্তু ব্যোমকেশের সদলবলে ফি বছর রুপোলি পর্দায় হাজিরা দেওয়া বন্ধ হতে চলেছে কেন?

byomkesh bakshi

জানা গিয়েছে, পরিচালক অরিন্দম শীল না কি আর স্রেফ দু’টো ব্যোমকেশ-ছবি বানাবেন। একটা ‘রক্তের দাগ’ অবলম্বনে, অন্যটা ‘দুর্গ রহস্য’ অবলম্বনে। এর মধ্যে ‘দুর্গ রহস্য’টা অঞ্জন দত্ত ছেড়ে দিয়েছেন তাঁকে। অর্থাৎ তাঁর তরফেও আপাতত ব্যোমকেশকে নিয়ে ছবি বানানোর খুব একটা আগ্রহ দেখা যাচ্ছে না। মানে, বাংলা ছবি ব্যোমকেশ-হীন হতে চলল বলে!

এ বার প্রশ্ন ওঠে, যে চরিত্রকে নিয়ে ছবি শীল এবং দত্তকে এত পয়সা তুলে দেয়, তা কেন আর করতে চাইছেন না ওঁরা?

byomkesh bakshi

সমস্যাটা ব্যোমকেশের চরিত্রাভিনেতা নিয়ে। যে কোনো কারণেই হোক, আবির চট্টোপাধ্যায় আর একঘেয়ে ভাবে অরিন্দম শীলের ছবিতে ব্যোমকেশ সেজে যেতে রাজি নন! আবার যখন আবির একই সঙ্গে ব্যোমকেশ আর ফেলুদা হয়েছিলেন, সেই সময়টায় অঞ্জন দত্ত এই চরিত্রে যিশু সেনগুপ্তকে নেন। এবং যিশু আপাতত ব্যোমকেশ সাজা থেকে বিশ্রামের মেজাজে রয়েছেন। তা-ই যদি হয়, তবে ব্যোমকেশ হবেটা কে?

তা, ব্যোমকেশকে নিয়ে ছবি করা যদি সত্যিই বন্ধ হয়ে যায়, তা হলে আর প্রশ্নটা তুলে লাভ কী! বরং, এ প্রসঙ্গে পরবর্তী খবরের অপেক্ষায় থাকা যাক!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here