paoli dam

ওয়েবডেস্ক: ঘর যার একবার পুড়েছে, সে তো সিঁদুরে মেঘ দেখলে ভয় পাবেই! সেই আশঙ্কাতেই কি ‘জুলি ২’ ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন পাওলি দাম?

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে পহলাজ নিহালনির প্রযোজনা সংস্থার ছবি ‘জুলি ২’। সেই ছবি মুক্তির আগেই নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল নায়িকা রাই লক্ষ্মীর যৌনদৃশ্যের ভিডিও। তা-ও একটি নয়, গুণে গুণে তিনটি! সেই নিয়ে শোরগোল থামতেই মুখ খুললেন পাওলি। এক সাংবাদিক বৈঠকে জানালেন, ‘জুলি ২’ ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব প্রথমে এসেছিল তাঁর কাছে। “কিন্তু আমার ছবির বিষয় পছন্দ হয়নি। তাই সরাসরি না বলে দিই”, বলছেন নায়িকা। এ-ও জানিয়েছেন, যৌনদৃশ্যে ভরপুর এমন ছবি করায় তাঁর আর রুচি নেই!

সে কী কথা! পাওলির কেরিয়ারে চোখ রাখলে দেখা যাবে অগুনতি ছবিতে যৌনদৃশ্যে স্বচ্ছন্দে অভিনয় করেছেন তিনি। বিশেষ করে বলিউডের ছবিতে। সে ‘হেট স্টোরি’ সিরিজের ছবিই হোক বা ‘ইয়ারা সিলি সিলি’। এই প্রসঙ্গে বলে রাখা ভালো, যৌনদৃশ্যে অভিনয় নিয়ে তেমন কোনো ছুঁৎমার্গ নেই নায়িকার। নিজেই তিনি জানিয়েছেন সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে – “ছবির দৃশ্য, এ বার তাকে বেড সিন বলুন বা যা খুশি, আমার কাছে কেবলই একটা দৃশ্যমাত্র!”

এ বার তা হলে আপত্তিটা কীসের?

“বলিউডের ছবিতে আমায় কেবল যৌনপ্রতিমা হিসেবেই ব্যবহার করা হচ্ছিল। এ ভাবে স্টিরিওটাইপ হয়ে যাচ্ছিলাম। সেই জন্যই জুলি ২-এ অভিনয়ের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিই”, পাওলির স্বীকারোক্তি।

যদিও গুজব বলছে অন্য কথা। বলিউডের যে ছবিগুলোয় এত দিন অভিনয় করে এসেছেন তিনি, তার কোনোটাই ‘জুলি ২’-র মতো এত যৌনদৃশ্যবহুল ছিল না। চিত্রনাট্যে তা দেখেই অস্বস্তিতে পড়েছিলেন পাওলি। বুঝতেও পেরেছিলেন, ছবি মুক্তির আগেই নঞর্থক প্রচারের অঙ্গ হিসেবে ব্যবহার করা হতে পারে তাঁর অভিনীত অন্তরঙ্গ দৃশ্য। ঠিক যেমনটা হয়েছিল ২০১১ সালে। সে বছরে ‘ছত্রাক’ ছবিতে তাঁর আর অনুব্রত বসুর অন্তরঙ্গ দৃশ্যের ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছিল হাটে-বাজারে। যার জন্য ষথেষ্ট বিরূপ সমালোচনা হজম করতে হয়েছিল তাঁকে। এ বারে আর সে সব ঝুঁকি নিতে চাননি তিনি!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here