ওয়েবডেস্ক: হম সাথ সাথ হ্যায়!

একটু ব্যঙ্গাত্মক শোনালেও এটা তাঁদের সম্পর্কে বলাই যায়! আসলে প্রীতি জিন্টা আর সলমন খান একসঙ্গে পেরিয়ে এসেছেন অনেকটাই পথ। সেটা শুধু একই ছবি কারখানায় কাজ করার সূত্রে নয়। অনেকগুলো ছবিতে পরস্পরের বিপরীতে অভিনয় করার সূত্রেও নয়। এগুলো সবই শুধু কারণ হিসাবে কাজ করেছে তাঁদের সৌহার্দ্যের নেপথ্যে।

ফলে, বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে সলমন জেল খাটছেন জেনে আর স্থির থাকতে পারেননি প্রীতি জিন্টা। কোনো মতে রাত ভোর হতে না হতেই বিমানে করে মুম্বই থেকে রওনা দিয়েছেন জোধপুরের দিকে।

প্রীতি যখন দুপুরের কাছাকাছি জোধপুরে পৌঁছেছেন, সেই সময় থেকেই শুরু হয়েছে চাঞ্চল্য। সেটা শুধুমাত্র পাপারাজ্জিদের ওঁত পেতে থাকার জন্য নয়। এই চাঞ্চল্য আদতে সলমন খানের ভক্তদের তরফে। যাঁরা বৃহস্পতিবার থেকেই নায়কের সাজা মকুবের আশায় ধর্না দিয়ে চলেছেন রাজস্থানে।

তাঁদেরই তোলা এক ভিডিওয় দেখা গেল, বিমানবন্দরে পৌঁছনোর পরে যত দ্রুত সম্ভব, একটা বেশ বড়ো সাদা টুপিতে মাথা ঢেকে, মুখ নীচু করে, কারও দিকে না তাকিয়ে প্রীতি প্রায় দৌড়ে গিয়ে উঠলেন গাড়িতে। খুব স্বাভাবিক ভাবেই ভাইরাল হল ঘটনার ভিডিও আর ছবি।

পাশাপাশি, টুইটার ছেয়ে গেল ভক্তদের ধন্যবাদে. সবার একটাই বক্তব্য, এই দুঃসময়ে প্রকৃত বন্ধুর কাজ-ই করলেন নায়িকা!

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here