ওয়েবডেস্ক: উঁহু! সাসেক্সের ডাচেস মেগান মার্কলে আর তাঁর প্রিয় বন্ধু প্রিয়াঙ্কা চোপড়া- দুজনেরই খ্রিস্টান মতে বিয়ে হয়েছে বলে পদাঙ্ক অনুসরণ করার কথা বলা হচ্ছে না! যা ঘটল, তা যেন এক আশ্চর্য সমাপতন!

আরও পড়ুন: হাতি-ঘোড়া-পালকির শোভাযাত্রা, মণ্ডপে এসেই পুরোহিতকে কষে বকুনি প্রিয়াঙ্কার, দেখুন ভিডিও

 

View this post on Instagram

 

Just us @nickjonas Shot by: Annie Leibovitz for @voguemagazine Captured on: #pixel3 (Link in bio)

A post shared by Priyanka Chopra (@priyankachopra) on

আচার অনুযায়ী, খ্রিস্টান বিয়েতেও একটা কন্যাদানের পর্ব থাকে! ভারতীয়দের মতোই খ্রিস্টান বিয়েতে মেয়ের বাবা নববধূকে গির্জার আইল দিয়ে হাঁটিয়ে নিয়ে আসেন হাত ধরে, তার পর তাঁকে তুলে দেন পাত্রের হাতে। প্রিয়াঙ্কার বাবা অশোক চোপড়া ২০১৩ সালেই প্রয়াত বলে কন্যাদান করেছেন নিক জোনাসের বাবা পল কেভিন জোনাস! ও দিকে, মেগানের বাবা থমাস মার্কলে বিয়েতে আসেননি বলে তাঁর বেলাতেও কন্যাদান করেছিলেন পাত্রের বাবাই- প্রিন্স চার্লস!

খবর মোতাবেকে, এই খ্রিস্টান বিয়ে রীতি মেনে সাদা রঙে মুড়ে দেওয়ার জন্য ৫০ কোটি টনের সাদা ফুল আনিয়েছিলেন নিকিয়াঙ্কা! কিন্তু এখানেই রাজসিকতা শেষ নয়। খবর আরও জানাচ্ছে, বিয়ের পরে নবদম্পতি যে কেক কাটেন, সেটা না কি ১৮ ফুট উঁচু করে তৈরি করা হয়েছে! ভারতীয় শেফদের উপরে ভরসা করতে না পেরে দুবাই আর কুয়েত থেকে নিজস্ব রাঁধুনি-দল ডাকিয়ে এনেছিলেন নিক, তাঁরাই দায়িত্ব নিয়ে কেকটা গড়েছেন!

স্বাভাবিক, ছোটো মাপের কেক হলে আমন্ত্রিতদের প্রত্যেককে তা দেওয়া যাবেই বা কী ভাবে!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here