ওয়েবডেস্ক: “আমি যখন প্রথম সন্দীপ রায়ের নিশিযাপন ছবির সেটে পরমকে দেখি, আমার মনে হয়েছিল- কী লাজুক ছেলে রে বাবা! সেই সময়টায় ও খুবই চুপচাপ থাকত, কথা প্রায় বলতই না কারও সঙ্গে! এর পরে আমরা অঞ্জন দত্তর বং কানেকশন ছবিতে কাজ করি, কিন্তু সেখানে ওর আর আমার কটাই বা সিন ছিল! আমাদের আলাপটা জমে ওঠে হাওয়া বদল ছবিটা করতে গিয়ে”, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় প্রসঙ্গে বক্তব্যের প্রাথমিক ভাগে এটুকুই জানাচ্ছেন রাইমা সেন! তা, ওই হাওয়া বদল থেকেই ছবির পর্দায় তাঁদের রসায়নেও অনেকটা বদল ঘটে গিয়েছিল না? মানে, ওই ছবি থেকেই তো পর পর তাঁদের বাকি সব ছবিতে ভিড় করে এসেছে অন্তরঙ্গ চুম্বন দৃশ্য?

আরও পড়ুন: বলিউডে কাজ পেতে হলে নিজেকে দেখাতে হয়, রাখঢাক না করে জানিয়ে দিলেন রাইমা!

#work #archived

A post shared by Raima Sen (@raimasen) on

সে চিত্রনাট্যের স্বার্থে হবে বোধ হয়! আপাতত রাইমার বাকি বক্তব্যে চোখ রাখা যাক! “এখন আমরা পরস্পরকে খুব ভালো করে চিনি! খুব সামান্য বিষয় নিয়েও আমরা হাসাহাসি করি! পরম জানে- আমি কখন কীসে রেগে যাই, কখন যাই না! আর পরম অনেক বদলে গিয়েছে। কী হেল্থ কনশাস এখন ও- ব্রাউন রাইস পছন্দ করে, আমি আবার সাদা ভাত! তা ছাড়া, পরি দেখে বুঝলাম, অভিনেতা হিসাবেও কী ম্যাচিওর করে গিয়েছে ও”, থামতেই চাইছেন না নায়িকা!

#rajmahtanicouturejewels

A post shared by Raima Sen (@raimasen) on

টলিপাড়া বলছে, এমনটা হওয়াই না কি স্বাভাবিক! অনেক দিন পরে ফের এক ছবিতে কাজ করছেন দুজনে, মুরারি এম রক্ষিতের সেই ছবির নাম ‘রিইউনিয়ন’! এর পরেও যদি মনের আকাশে আবেগের মেঘ না ঘনায়, তা হলে তো সম্পর্কই বৃথা, তাই না?

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন