নয়াদিল্লি :  লাস্যময়ী সানি লিওনকেও পিছনে ফেলে শীর্ষে উঠে গেলেন আলিয়া ভাট।

পেটা (পিপলস ফর দ্যা এথিক্যাল ট্রিটমেন্ট ফর অ্যানিমেলস) আয়োজিত এ বছরের ‘হটেস্ট ভেজিটেরিয়ান সেলিব্রেটি’-র খেতাব পেলেন আলিয়া ভট ও রাজকুমার রাও। উল্লেখ্য পশুদের অধিকার রক্ষার জন্য কাজ করে পেটা।

এই প্রতিযোগিতায় খেতাবের দৌড়ে ছিলেন অমিতাভ বচ্ছন, বিদ্যুৎ জামওয়াল, সহিদ কাপুর, কঙ্কনা রানওয়াত, সানি লিওন-সহ অনেকেই।

খেতাব জিতে আলিয়া বলেন, তিনি নিরামিষ খাবার খেতেই পছন্দ করেন। এটাই সুস্বাস্থ্যের চাবিকাঠি।

অভিনেতা আয়ুষ্মান কুমারন বলেন, অভিনেতারা হলেন সমাজের পথপ্রদর্শক। তাই তাঁদের কোনো বদঅভ্যাস থাকা উচিত নয়। ধুমপান করা উচিত নয়, মদ্যপান করা উচিত নয়, আমিষ খাবার খাওয়া উচিত নয়। আর সব সময় ভালো করে কথা বলা উচিত।

পেটার সেলিব্রেটি অ্যান্ড পাবলিক রিলেশনের অ্যাসোসিয়েট ডিরেক্টর সচিন বাঙ্গেরা বলেন, আলিয়া আর রাজকুমার দু’ জনেই হট, ফিট আর সহানুভূতিশীল। এঁরা ফ্যানদের জন্য এক্কেবারে আদর্শ মানুষ। যাঁরা জলবায়ু পরিবর্তনের সম্পর্কে নিজের মতো করে কিছু করতে চান তাঁদের কাছে এই দুই তারকা উদাহরণ।

বলেন, পশুপ্রাণীর প্রতি ভালোবাসার চেয়ে বেশি ‘সেক্সি’ আর কিছুই হয় না – এ কথা আলিয়া আর রাজকুমার প্রমাণ করেছেন।

উল্লেখ্য মাংস খাওয়ার পরিমাণ বাড়ছে। ফলে সেই সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাড়ছে পশুদের জীবনধারণের সমস্যা। সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মানুষের নানান রোগব্যাধির সমস্যা। বাড়ছে হৃদরোগের সমস্যা, মধুমেহ রোগ, ক্যানসার, স্থুলতা ইত্যাদির সমস্যাও।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here