ওয়েবডেস্ক: উঁহু! এই প্রথম বার এমন ঘটল না! প্রথম বার শুধু ঘটনাটা নিয়ে মুখ খুললেন নায়িকা- এই যা!

rani mukerji

সাফ জানিয়েছেন রানি মুখোপাধ্যায়- তাঁর পরিবারে নির্যাতন এবং মন্দ কথার স্রোত বয়ে যাওয়া প্রায় নিত্য নৈমিত্তিক ঘটনা!

rani mukerji and sabyasachi mukherjee

তবে, এই নির্যাতনের বৃত্তান্ত কিন্তু পুলিশের কাছে জানাননি রানি। জানিয়েছেন নেহা ধুপিয়ার কাছে। আসলে, ‘ভোগ বিএফএফ’, অর্থাৎ বিশ্বখ্যাত ‘ভোগ’ পত্রিকা প্রযোজিত ‘বেস্ট ফ্রেন্ড ফরএভার’ টক শো-তে পুরনো বন্ধু এবং দেশের ডাকসাইটে ফ্যাশন ডিজাইনার সব্যসাচী মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে হাজির হয়েছিলেন রানি। নেহা ধুপিয়ার আতিথ্যে এই শো-তে এসে বলিউডের অনেক তারকাই নানা রকম বিস্ফোরক শিরোনাম উপহার দিয়েছেন সংবাদমাধ্যমকে। সেখানেই মন খুলে জানিয়েছেন নায়িকা পারিবারিক নির্যাতনের কথা।

rani mukerji

আরও পড়ুন: বরের প্রিয় তিনটে ‘F’, ফুড-ফিল্ম আর শেষেরটা মুখে আনতে পারলেন না রানি!

তবে আগ বাড়িয়ে নয়। জানতে চেয়েছিলেন নেহা- রানি কি তাঁর বরকে গালাগালি দেন? না কি মানুষটি আদিত্য চোপড়া এবং বলিউডের গডফাদারদের একজন বলে রেয়াত করে চলেন?

rani mukerji

“ও সবের প্রশ্নই উঠছে না! যখন আমার মাথা গরম হয়, তেড়ে গালাগালি করি আদিকে। শারীরিক ভাবে হেনস্তাও করি, গায়ে হাত তুলি। তবে এটা কিন্তু একতরফা নয়। আদিরও মেজাজ গরম থাকলে মুখ দিয়ে খারাপ খারাপ কথা বেরোয়, আমায় পেটায়! এবং এটা একদিনের ব্যাপার নয়, প্রায় রোজই হয়”, অকপট স্বীকারোক্তি রানির।

rani mukerji

তা হলে কি এটাই ধরে নিতে হবে যে খুব একটা সুখী দাম্পত্যে নেই নায়িকা? বাস করছেন চরম অশান্তির সংসারে?

rani mukerji and aditya chopra

এ রকম ভাবলে ভুল শুধরে নেওয়ার জন্য সে-ই নায়িকারই উক্তি ব্যবহার করতে হবে। “একটা কথা এখানে না বললেই নয়। গালাগালি দিই বলে আর পেটাই বলে আমরা যে পরস্পরকে ভালোবাসি না, তা নয়! বরং খুব বেশি রকমের ভালোবাসি বলেই এটা করতে পারি! আর গায়ে হাত তুললেও তা ঠিক শারীরিক অত্যাচার নয়, বরং ভালোবাসার অত্যাচার বলা যায়”, জানিয়েছেন রানি।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here