ওয়েবডেস্ক: জামাইয়ের মুখের উপরে কিছু বলাটা সাধারণত ভারতীয় সংস্কৃতির সঙ্গে খাপ খায় না! সবাই যথাসাধ্য জামাইকে মাথায় করেই রাখেন! সে জামাই যেমনই হোন না কেন!

কিন্তু বলিউডের অন্দরমহলের গোপন খবর বলছে- বোন সোনম কাপুরের বেছে নেওয়া সুপাত্র আনন্দ আহুজাকে মোটেই পছন্দ করে উঠতে পারেননি রণবীর সিং! সে জন্যই তিনি বোনের বিয়ের মেহেন্দি আর সঙ্গীতেও যোগদান করেননি! বিয়ে আর প্রীতিভোজটা নেহাত কাজের ছুতো দেখিয়ে এড়ানো যায় না, তাই যেতে বাধ্য হয়েছিলেন!

কিন্তু সেই প্রীতিভোজের অনুষ্ঠানেই আনন্দ আহুজার সঙ্গে বেশ এক প্রস্ত কথা কাটাকাটি হয়ে গিয়েছে রণবীর সিংয়ের। প্রীতিভোজে যতই নেচে সবার মন মাতান না কেন তিনি, সে টেবিলের উপরে উঠেও, পুরোটাই না কি ছিল বাহ্যিক! আনন্দকে কোলে তুলে নাচাও! বলিউড বলছে, সুযোগ পেলেই বেরিয়ে গিয়ে দীপিকা পাড়ুকোনকে ফোন করছিলেন রণবীর! যতক্ষণ পারছিলেন, হবু স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেই সময় কাটাচ্ছিলেন! ডাক পড়লে ভিতরে গিয়ে দু-এক পাত্তর গলায় ঢেলে, খানিকটা নেচে ফের বেরিয়ে আসছিলেন!

কিন্তু ঠিক কী নিয়ে মনোমালিন্য হয়েছে রণবীর এবং আনন্দের?

সে কথা নিয়ে আর বলিউডকে আলো-আঁধারিতে থাকতে হয়নি! কাপুর বাড়ির নতুন জামাই নিজেই ঢাক-ঢোল পিটিয়ে নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেল মারফত খবরটা জানিয়ে দিয়েছেন সবাইকে! বিষয়টা বরের জুতো! তা বলে এটা কিন্তু জুতো চুরির বিয়ের আচারের গল্প নয়!

সবাই জানেন, স্নিকার্সের প্রতি আনন্দ আহুজার ভালোবাসাটা একটু বেশিই! এতটাই যে প্রীতিভোজের সাবেকি সাজের সঙ্গেও তিনি পায়ে গলিয়েছিলেন এক জোড়া নতুন স্নিকার্স! আর সেটা নিয়েই রীতি মতো হাসাহাসি করেছেন রণবীর! ঠোঁটকাটা বলে তাঁর দুর্নাম তো রয়েছেই, ফলে আনন্দকে এ হেন পছন্দের জন্য কথা শোনাতেও ছাড়েননি! শুধু তাই নয়, সবাইকে ডেকে ডেকে নতুন জামাইয়ের স্নিকার্স নিয়ে মশকরাও করেছেন তিনি!

ranveer singh

“আমার স্নিকার্সটা রণবীর সিংয়ের পছন্দ হয়নি! কিন্তু এ যাত্রা ছাড় দেওয়া হয়েছে আমায়, অনুষ্ঠানটা আমারই বিয়ের বলে”, ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে এ কথা লিখেছেন আহুজা। সঙ্গে যে ছবিটা দিয়েছেন সেটা তাঁর আর রণবীরের এক সঙ্গে নাচার, কিন্তু এক ঝলক দেখলে হাতাহাতি মনে হতেই পারে! বলিউডের দাবি, ইচ্ছে করেই সেই জন্য এমন ছবি বেছে নিয়েছেন তিনি!

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন