ওয়েবডেস্ক: ‘দাবাং ৩’ এখনও মুক্তি পায়নি, তার আগেই সলমন খান নিশ্চিত করলেন, ভক্তদের মনোরঞ্জনে এই সিরিজের চতুর্থ ছবিটিও তৈরি হতে চলেছে। ‘মুম্বই মিরর’কে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে অভিনেতা খুশির খবর জানিয়ে বলেন, ‘দাবাং ৪’-এর কাহিনি ইতিমধ্যেই লেখা হয়ে গিয়েছে। তবে তিনি এ সম্পর্কে এর বেশি কোনো তথ্য প্রকাশ করেননি।

‘দাবাং’ সিরিজের ছবিগুলি যে তাঁর হৃদয়ের কতটা কাছাকাছি রয়েছে, সে সম্পর্কে সলমন জানান, তিনি দাবাং সেটে প্রবেশ করার মুহূর্তেই চুলবুল পান্ডেতে রূপান্তরিত হয়ে যান। তিনি আরও জানান, ছবির কাস্টিং তাঁর কাছে নিজের পরিবারের মতোই।

এর আগে ‘দাবাং’ সিরিজের দু’টি ছবিই ব্যাপক বাণিজ্যিক সাফল্য পেয়েছে। এর মূল চরিত্র চুলবুল পান্ডে, প্রতিশোধের গল্পকেন্দ্রিক এই ছবির মূল চরিত্রে অভিনেতা যেখানে সলমন, সেখানে পরিচালকের ভূমিকায় রয়েছেন স্বনামধন্য কোরিওগ্রাফার-অভিনেতা প্রভুদেবা। আগামী ২০ ডিসেম্বর মুক্তি পাবে দাবাং ৩।

একই সাক্ষাৎকারে সলমন নিজের অন্যান্য প্রজেক্টগুলি সম্পর্কেও কথা বলেন। সলমন নিশ্চিত করেছেন, ২০২০ সালের ইদে রাধে মুক্তি পাবে। বক্স অফিসে অক্ষয় কুমারের ‘লক্ষ্মী বম্ব‘-এর সঙ্গে রাধের সংঘর্ষের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে সলমন বিনীতভাবে উত্তর দিয়েছেন, দু’জন চলচ্চিত্র নির্মাতারা সেই তারিখে তাঁদের ছবিগুলিকে দর্শকের জন্য প্রেক্ষাগৃহে পাঠানোর সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন, যাতে দর্শকরা নিজেদের পছন্দ মতো ছবিটিকে বেছে নিতে পারেন।

সলমন আরও বলেন, ফারহান আখতার তাঁর কাছে একটি চিত্রনাট্য নিয়ে এসেছেন। তবে ছবিটি নিশ্চিত বা অস্বীকার করার কোনো ইঙ্গিত তিনি প্রকাশ করেননি। একই সঙ্গে রোহিত শেঠির সঙ্গেও একটি কাজের ব্যাপারে তাঁর আলোচনা চলছে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন