ওয়েবডেস্ক: অভিনেতাদের রাজনীতিতে যোগদান নতুন কিছু নয়। কিন্তু দত্ত পরিবার আর কংগ্রেসের সম্পর্কটা একটু আলাদা। সুনীল দত্ত থেকে সেই যোগাযোগের শুরু, এই কংগ্রেস সাংসদ ছিলেন সক্রিয় রাজনৈতিক কর্মী। তাঁর প্রয়াণের পর সেই দায়িত্ব বহন করছেন কন্যা প্রিয়া দত্ত, তিনিও এক বার সাংসদ হয়েছিলেন। ফলে, এ বারের লোকসভা নির্বাচনে জল্পনা ছিল তুঙ্গে- সঞ্জয় দত্তও কংগ্রেসের হয়ে উত্তর মুম্বই নির্বাচনসভা থেকে লড়বেন!

 

View this post on Instagram

 

May the stache be with you 😎 #Movember

A post shared by Sanjay Dutt (@duttsanjay) on

আরও পড়ুন: বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি- ৬ বছরের সঞ্জয় দত্তকে সিগারেটের নেশা ধরিয়েছিলেন খোদ সুনীল দত্ত!

“আমার রাজনীতিতে আসার ইচ্ছা নেই। আমি কংগ্রেসে যোগ দিচ্ছি না। তবে হ্যাঁ, প্রিয়ার জন্য যা কিছু করার দরকার, সে সবে আমি পিছ-পা হব না”, সম্প্রতি জানিয়েছেন নায়ক। যদিও খোলসা করেননি- বোনের হয়ে রাজনৈতিক প্রচারে তিনি নামবেন কি না!

পাশাপাশি, ২০০৯ সালে লখনউ থেকে সমাজবাদী দলের হয়ে নির্বাচন লড়ার প্রসঙ্গও টেনেছেন বক্তব্যে সঞ্জয়। সে বার যদিও তাঁর নির্বাচন লড়া হয়নি, তাঁকে চলে যেতে হয়েছিল জেলে। পরে দল তাঁকে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দিলেও তা ফিরিয়ে দিয়েছিলেন নায়ক, একেবারেই সরে এসেছিলেন রাজনীতি থেকে।

 

View this post on Instagram

 

Thanks for coming out & showing us so much love, Delhi! See you guys in cinemas with @sbg3film Book your tickets now (Link in Bio)

A post shared by Sanjay Dutt (@duttsanjay) on

“কে জানে কেন নির্বাচনে লড়তে গিয়েছিলাম! ওটা আমার জীবনের বড়ো একটা ভুল সিদ্ধান্ত। রাজনীতি আমার জায়গা নয়। কেন না, নির্বাচনের আগে দেশকে গুচ্ছ প্রতিশ্রুতি দিতে হবে আর পরে তা পালনও করতে হবে! কিন্তু আজ পর্যন্ত কোনো নেতা তাঁর প্রতিশ্রুতি পালন করেননি। কেন না, তা সম্ভবই নয়। আমার মতো খামখেয়ালি লোকের ক্ষেত্রে তো নয়ই”, জবানবন্দির পাশাপাশি দেশের নেতাদের ব্যর্থতা নিয়েও সরব সঞ্জয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here